ভারতের চাষিদের জল দেওয়া বন্ধ করল ভুটান!

Bhuthan

Mysepik Webdesk: ভারত চিন সীমান্ত উত্তেজনার পারদ ক্রমশ চড়ছে। অন্যদিকে, ভারতের তিনটি এলাকাকে নিজেদের মানচিত্রে অন্তর্ভুক্ত করে নতুন মানচিত্র আগেই সংসদে পাশ করিয়েছে নেপাল সরকার। এদিকে বাংলাদেশকেও নিজেদের সঙ্গে রাখতে চাইছে চিন। ফলে সে দেশ থেকে আমদানি করা পণ্যের উপর প্রায় ৯৭% শুল্ক মকুবের সিদ্ধান্ত নিয়েছে চিন সরকার। এই পরিস্থিতিতে নতুন করে সমস্যার শুরু করেছে ভুটান! ফলে প্রতিবেশী নিয়ে কার্যত চাপেই রয়েছে ভারত।

আরও পড়ুন: কোভিড-১৯ এর ওষুধ প্রথম পর্যায়ে আসছে পাঁচ রাজ্যে, বাংলায় আসবে দ্বিতীয় পর্যায়ে

ভারতের কৃষকদের চাষের জল দেওয়া বন্ধ করে দিল ভুটান। এই পরিস্থিতিতে প্রতিবাদে নেমেছেন গরীব চাষিরা। তাঁরা এই বিষয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের হস্তক্ষেপ চাইছেন। ভুটান সরকার অবশ্য মুখে কুলুপ এঁটেছে।

১৯৫৩ সাল থেকে ভারতের বাসিন্দা চাষিদের জল দিয়ে আসছে।অসমের বাকসা জেলায় একটি সেচ চ্যানেলের দিয়ে এই জল দিত ভুটান। সেই জল দিয়ে প্রায় ২৬ গ্রামের চাষির চাষ করে সংসার চলত। কিন্তু হঠাৎ সেই জল বন্ধ করে দেওয়ায় মাথায় হাত পড়েছে চাষিদের। এমনিতেই লকডাউনের ফলে চাষিদের হাতে টাকা পয়সা নেই, তার মধ্যে বন্ধ চাষ। কীভাবে এই সমস্যা মিটবে তার কুল কিনারা ভেবে পাচ্ছে না চাষিরা। খাবার জুটবে কী করে, সেটাই এখন সব থেকে বড় চিন্তা কালীপুর, বোগাজুলি ও কালানদী গ্রামের চাষিদের।

আরও পড়ুন: দেশের মহাকাশ গবেষণার ক্ষেত্রে বড়োসড়ো সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্র

সরকারের তরফে এখনও কোনও রকমের বন্দোবস্ত হয়নি। ফলে চাষিরাই ওই চ্যানেল রক্ষণাবেক্ষণ দায়িত্বে থাকা কৃষক সমিতির ব্যানারে ডেপুটেশন জমা দিয়েছেন জেলা প্রশাসনের কাছে। তাঁরা কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে আর্জি জানিয়েছেন বিষয়টিতে অবিলম্বে হস্তক্ষেপ করার জন্য।

Facebook Twitter Print Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *