সুন্দরী মেয়েরা পুরুষের হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি বাড়িয়ে দেয়!

Mysepik Webdesk: সুন্দরী মেয়েকে দেখলে অধিকাংশ ছেলেদের মনের ভিতরটা হু হু করে ওঠে! আমরা অনেক সিনেমার পর্দায় দেখেছি সুন্দরী মেয়ে দেখলেই বুকের ভিতরে ‘উথাল পাথাল’ হওয়ার ঘটনা। তবে এখন বাস্তবেও তার ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে। অনেকেই সে কথা বন্ধু-বান্ধবদের সঙ্গে আড্ডায় স্বীকারও করেন। তবে এ বিষয়ে এখনই সংযত হওয়া খুব জরুরি। কারণ, স্পেনের একদল গবেষকদের দাবি, সুন্দরী মেয়ে দেখলেই বেশিরভাগ ছেলেদের যে ভাবে বুক ধড়ফড় করা বেড়ে যায় তা হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি অনেকটাই বাড়িয়ে দেয়!

আরও পড়ুন: স্যানিটাইজার, মাস্ক এসবের কতটা প্রয়োজন? কি বলছেন বিশেষজ্ঞরা?

কিছুদিন আগেই স্পেনের ভ্যালেন্সিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক জানিয়েছেন, সুন্দরী মেয়েরা সামনে আসলে ছেলেদের অনেকটাই মানসিক চাপ বেড়ে যায়। অপরিচিত সুন্দরী মেয়েদের ক্ষেত্রেই মানসিক চাপ বৃদ্ধির এই প্রবনতা অনেকটাই বেশি। দীর্ঘ ৯ বছরেরে গবেষণা করার পর তাঁরা এই সিদ্ধান্তে পৌঁছেছেন। এই গবেষকদের দাবি, এই মানসিক চাপ কখনও কখনও এতটাই বেড়ে যায় যে, তার ফলে হার্ট অ্যাটাক পর্যন্ত হতে পারে!

আরও পড়ুন: সাবধান! এই অবস্থায় কখনোই হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করবেন না, তাহলেই বিপদ

গবেষকরা জানান, ৮৪ জন স্বেচ্ছাসেবক পুরুষের ওপর তাঁরা টানা ৯ বছর ধরে গবেষণা চালিয়েছেন। তাতে তাঁরা দেখেছেন সুন্দরী মেয়েরা কাছে আসার ৫ মিনিটের মধ্যেই ছেলেদের হৃদস্পন্দনের গতি অনেকটাই বেড়ে যায়। এই সময়ে ছেলেদের শরীরে ‘কোর্ট্রিসল’ নামের বিশেষ হরমোনের নিঃসরণ অনেকটা বেড়ে যায়। এই ‘কোর্ট্রিসল’ হরমোনের মাত্রাতিরিক্ত নিঃসরণের ফলে আমাদের হৃদযন্ত্রের ক্ষতির আশঙ্কা অনেকটাই বেড়ে যায়। সুতরাং, সুন্দরী মেয়েদের দেখলেই সতর্ক ভাবে সংযত হওয়া জরুরি।

Facebook Twitter Print Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *