আবার জুলাইয়ের আট তারিখ দরজায় দাঁড়িয়ে…

Subhash Mukhopadhyay

প্রণব বিশ্বাস সতেরো বছর আগের আট জুলাইয়ের সকাল থেকে গোটাদিনের একটা না-তোলা তথ্যচিত্র যেন চোখের পাতা জুড়ে এসে দাঁড়িয়ে থাকে। স্মৃতি সতত যে সুখের নয়, তা এই তারিখে ফিরে এলে স্পষ্ট মনে হয়। আরও পড়ুন: কাব্যশৈলীর রচয়িতা, পার্সি বেশ্যি শেলি সঙ্গে সঙ্গে অন্য এক স্মৃতির টানে অনেক অনেক দূরে ফিরে যাই। স্কুলের ষষ্ঠ শ্রেণি‌। বাংলার মাস্টারমশাই, যিনি স্কুলঘরের অবরুদ্ধ পরিবেশে

Read more

কাব্যশৈলীর রচয়িতা, পার্সি বেশ্যি শেলি

অনিন্দ্য বর্মন “আমি অসিম্যানডায়াস। রাজারদের রাজা। আমার বিস্তীর্ণ রাজ্য, সুবর্ণ প্রান্তর। কালের গহ্বরে বসে আছি। সম্মুখে আমারই তৈরি ভগ্নস্তূপ। কিছুই নেই, পড়ে আছে আমার বিরাটাকায় মূর্তির ধ্বংসাবশেষ।” আরও পড়ুন: রুটি ফলের গাছ স্থায়িত্বের শিখরে ছিলেন কোনও এক রাজা অসিম্যানডায়াস। অসীমতা বিনষ্ট করেছে তাঁর সকল কীর্তি। এভাবেই তো কত কিছু হারিয়ে যায়। কবি দৃশ্য ধরে রাখেন তাঁর পঙ্‌ক্তিতে। যেমন হোমার। গ্রিক

Read more

রুটি ফলের গাছ

Breadfruit-tree

গৌতম চট্টোপাধ্যায় প্রায় বছর পঞ্চাশেক আগে বারবার পড়তে ভালোই লাগত পথ হারানো এক পথিক কীভাবে জলের গাছ আর রুটি ফলের গাছ খুঁজে পেয়ে তার ক্ষুতপিপাসা নিবারণ করেছিলেন! তারপর সুদীর্ঘ বিয়াল্লিশ বছর আগে ১৯৭৮ সালে বম্বে রামকৃষ্ণ মিশনের গ্রন্থাগারিক পদে চাকরি পেয়ে প্রথম চিনেছিলাম জলের গাছ অর্থাৎ পান্থপাদপ মানে Traveller’s tree, যার বৈজ্ঞানিক নাম Ravenala madagscaris (এই গাছ অবশ্য এখন আমার

Read more

চলুন কফি ক্ষেতে যাই

Coffie

গৌতম চট্টোপাধ্যায় আমার বাগানের গাছগুলিতে প্রতিবছর প্রায় একসঙ্গেই ঝাঁকে ঝাঁকে ছোট ছোট সাদা সাদা বাসমতী ফুল ছেয়ে থাকে, সুগন্ধে বাগান মথিত হয়। তারপর সেই ফুল জন্ম দেয় সমসংখ্যক কচি কফি ফলের। দীর্ঘ সময় ধরে ডাগর হয় সেই সব সবুজ ফল, কচিসবুজ রং হয় কালচে সবুজ। তারপর সাদাটে-গোলাপি থেকে সিঁদুরে লাল রং। এই তো গাছ নেমে গেছে, সময় হয়েছে সব টুকিয়ে

Read more

মানুষ বিধানচন্দ্র রায়ের গল্প

Dr. Bidhan Chandra Roy

মিত্রাংশু ব্যানার্জ্জী ১৯৬১ সালের আগস্ট মাসের ৬ তারিখ। ভারতবর্ষের এক অঙ্গরাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে আমেরিকার রাষ্ট্রপতি জে এফ কেনেডি এক সৌজন্যমূলক সাক্ষাৎকারে বসেছেন। হঠাৎ সেই ব্যক্তি কেনেডির দিকে ভুরু কুচকে কিছুক্ষণ তাকিয়ে থেকে বলে উঠলেন, “আমার মনে হয় আপনি আপনার পিঠে অনেকদিন ধরেই একটা তীব্র ব্যথা অনুভব করছেন।” ঘটনার আকস্মিকতায় বিস্মিত হয়ে গেলেও নির্ভুল ডায়াগনসিসের জন্য অচিরেই কেনেডি সেই ব্যক্তির কাছে

Read more

স্মরণে অধ্যাপক অমলেন্দু বন্দ্যোপাধ্যায় (১ ফেব্রুয়ারি ১৯৩০-২১ জুন ২০২০)

Amalendu Bandyopadhyay

ড. অর্ণব বন্দ্যোপাধ্যায় জন্ম ১ ফেব্রুয়ারি ১৯৩০ খ্রিস্টাব্দে, পশ্চিমবঙ্গের হাওড়া জেলা বাগনান থানার অন্তর্গত মুগ্ কল্যাণগ্রামে। স্কুলজীবনে এই গ্রামে। কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়াশোনা বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়ে। ১৯৫২ সালে হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ফলিত গণিত নিয়ে এমএসসি। এমএসসি-তে বিশেষ পাঠ্য বিষয় ছিল জ্যোতির্বিজ্ঞান। জ্যোতির্বিজ্ঞান পড়ার সুযোগ হয়েছিল তৎকালীন হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয় খ্যাতনামা গণিতের অধ্যাপক বিষ্ণুবাসুদেব নারলিকারের কাছে। তিনি ছিলেন বিশ্বখ্যাত জ্যোতির্বিজ্ঞানী জয়ন্ত বিষ্ণু

Read more
1 2 3 27