ভারতের কোনও অংশই দখল করেনি চিন, সর্বদলীয় বৈঠকে জানালেন প্রধানমন্ত্রী

Mysepik Webdesk: লাদাখ পরিস্থিতি নিয়ে সর্বদলীয় বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। ওই বৈঠকে দেশের ২০ টি রাজনৈতিক দলের নেতারা উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে হাজির ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah) এবং প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং (Rajnath Singh)। গতকাল ওই বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি জানালেন, ভারতের কোনও অংশই চিন (China) দখল করতে পারেনি। পাশাপাশি তিনি সবাইকে আস্বস্ত করে জানান, সেনাবাহিনীর ওপর ভারতের পূর্ণ আস্থা আছে ,দেশকে রক্ষা করতে, দেশের নিরাপত্তা দিতে তারা যথেষ্ট সক্ষম। কোনও বাইরের চাপের কাছে সেনারা নতিস্বীকার করবে না। তিনি জানান, দেশের সুরক্ষার জন্য যা যা করণীয় তা সবই করা হবে। পরিস্থিতি অনুযায়ী যেকোনও পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য সেনাকে পূর্ণ স্বাধীনতা দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন: অযোধ্যায় রামমন্দির নির্মাণ স্থগিত, ঘোষণা ট্রাস্ট কর্তিপক্ষের

ওই বৈঠবে বিরোধী দল কংগ্রেসের (Congress) পক্ষ থেকে প্রশ্ন উঠেছিল, চিনারা কি ভারতের ভূখণ্ড দখল করে নিয়েছে? উত্তরে প্রধানমন্ত্রী জানান, চিনা সেনা সীমান্ত পেরিয়ে ভারতীয় এলাকায় অনুপ্রবেশ ঘটায়নি, কোনও পোস্টও দখল করেনি। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এটা ঠিক যে আমাদের ২০ জুন সেনা শহীদ হয়েছেন, কিন্তু যারা ভারত মাতার দিকে মুখ তুলে তাকিয়েছেন, তাদেরকে সেনা উচিত শিক্ষা দিয়েছে। সেনাবাহিনীর উদ্দেশ্যে তিনি এদিন বলেন, আমি সেনাবাহিনীকে আস্বস্ত করতে চাই, গোটা দেশ তাদের পাশে রয়েছে।

আরও পড়ুন: কাল বাদে পরশু সূর্যগ্রহণ, জেনে নিন কোথা থেকে কখন দেখা যাবে এই গ্রহণ

তিনি জানান, ভারত কোনও বাহ্যিক চাপের কাছে নতিস্বীকার করবে না। দেশের নিরাপত্তার জন্য যা যা করণীয় তার সবটাই করা হবে। তিনি জানান, “পরিকাঠামো উন্নত হওয়ায় তার সাহায্যে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় নজরদারি আরও সহজ হয়েছে৷ এর ফলে আমরা প্রতিনিয়ত পরিস্থিতির উপরে নজরদারি চালাতে পারছি এবং পরিস্থিতি অনুযায়ী দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়াও সম্ভব হচ্ছে।” তিনি আরও বলেন, ভারত শান্তি এবং বন্ধুত্বের পক্ষে। তবে দেশের অখণ্ডতা ও সার্বভৌমত্বের সঙ্গে কোনও আপোস করা হবে না। পাশাপাশি তিনি সবাইকে পাশে থাকার অনুরোধ জানিয়েছেন।

Facebook Twitter Print Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *