করোনা রোগী ফেরালে লাইসেন্স বাতিল হয়ে যেতে পারে, বেসরকারি হাসপাতালগুলোকে হুঁশিয়ারি রাজ্যের স্বাস্থ্য দপ্তরের

Mysepik Webdesk: বিভিন্ন সময়ে একাধিকবার রাজ্যের বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালগুলির বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে চিকিৎসা না করে করোনা রোগীকে (Covid 19 Patient) ফিরিয়ে দেওয়ার। এবার সেই অভ্যাসে রাশ টানতে উদ্যোগী হয়েছে রাজ্যের স্বাস্থ্য দপ্তর। এতদিন পর্যন্ত মৌখিক অনুরোধ কাজে না আসায় আরোও কঠোর হয়েছে রাজ্যের স্বাস্থ্য দপ্তর। সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালগুলিতে করোনা রোগীদের ভর্তি নিয়ে হয়রানি ঠেকাতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন: চা-ওয়ালা বাবার মেয়ের স্বপ্ন আকাশছোঁয়া, আজ সে বায়ুসেনার পাইলট

সরকারি এবং বেসরকারি হাসপাতালগুলির ক্ষেত্রে দুটি ভিন্ন ভিন্ন নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে, এবার থেকে কোনও রোগী প্রত্যাখ্যানের খবর পাওয়া গেলে সংশ্লিষ্ট হাসপাতালের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হবে। এর ফলে পশ্চিমবঙ্গ ক্লিনিক্যাল এস্টাব্লিশমেন্টস অ্যাক্টে (West Bengal Clinical Establishment Act) সংশ্লিষ্ট বেসরকারি হাসপাতালের লাইসেন্স সাসপেন্ড করা হতে পারে। কোনও সরকারি হাসপাতাল রোগী ফেরালে ওই হাসপাতালের দায়িত্বপ্রাপ্ত আধিকারিকের বিরুদ্ধে সার্ভিস রুল অনুযায়ী শৃঙ্খলাভঙ্গের দায়ে ব্যবস্থা নেওয়া হতে পারে। পাশাপাশি ওই নির্দেশ কার্যকর করার জন্য সরকারি হাসপাতালের সুপারদের নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে। স্বাস্থ্য দপ্তরের এই সিদ্ধান্তে অ্যাসোসিয়েশন অব হেলথ সার্ভিসেস (Association of Health Services) চিকিৎসক ছাড়াও বিভিন্ন চিকিৎসক সংগঠন জানিয়েছে, সরকারের এই নির্দেশ যদি সত্যি কার্যকরী হয় তবে তাতে অসংখ্য রোগী উপকৃত হবে।

Facebook Twitter Print Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *