কলের পাইপ, চকলেট বোম, সাইকেলের বেয়ারিং দিয়েই বানানো হয়েছিল ‘হোমমেড’ বন্দুক, খুলছে রিজেন্ট পার্ক খুনের জট

Mysepik Webdesk: রিজেন্ট পার্কে কলেজে ছাত্রী প্রিয়াঙ্কার খুনের কয়েকঘন্টা পরেই টালিগঞ্জ থেকে গ্রেফতার করা হয় জয়ন্তকে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে প্রকাশ্যে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য। ছ’ইঞ্চি লম্বা একটি কলের পাইপ, দুটি চকলেট বোম এবং সাইকেলের বেয়ারিং দিয়ে ইন্টারনেট ঘেঁটে নিজস্ব ‘ইঞ্জিনিয়ারিং’ বিদ্যা কাজে লাগিয়ে একনলা বন্দুক বানিয়েছিল রিজেন্ট পার্ক কাণ্ডে খুনের অপরাধী পেশায় গাড়িচালক জয়ন্ত। নিজের বানানো বন্দুক দিয়েই সে নৃশংসভাবে খুন করে একদা ‘প্রেমিকা’ কলেজছাত্রী প্রিয়াঙ্কাকে।

আরও পড়ুন: পবিত্র রিস্তার ‘জ্যায়সি হো ওয়েসি রহো’ গানের দৃশ্যে সুশান্ত-অঙ্কিতার রোম্যান্স ভাইরাল নেটদুনিয়ায়

পুলিশের জেরায় জয়ন্ত জানিয়েছে, প্রতিটি কার্তুজের ভেতরে সে বিস্ফোরক হিসেবে চকলেট বোমের বারুদ ব্যবহার করে। এই কারণেই সে দুটি চকলেট বোম বাজার থেকে কিনে আনে। সাইকেলের বেয়ারিংএর বলের সঙ্গে চকলেট বোমার বারুদ মিশিয়ে সেটিকেই গুলি হিসেবে ব্যবহার করে জয়ন্ত। সূত্রের মাধ্যমে জানা গেছে, নিজে বিবাহিত হওয়া সত্ত্বেও জয়ন্ত প্রেমের সম্পর্ক চালিয়ে যেতে চেয়েছিল রিজেন্ট পার্কের পশ্চিম আনন্দপল্লীর বাসিন্দা প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে। কিন্তু প্রিয়াঙ্কা তাতে রাজি হয়নি। তাই প্রতিশোধ নিতে প্রেমিকাকে পৃথিবী থেকে সরিয়ে দিতে ছক কষতে থাকে জয়ন্ত।

আরও পড়ুন: কিভাবে চিনাদের ১৪ নম্বর পেট্রলিং পয়েন্ট থেকে সরিয়ে দিয়েছিল ভারতীয় সেনা, প্রকাশ্যে এল সেই তথ্য

জয়ন্তকে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ জানতে পেরেছে, ইন্টারনেট ঘেঁটে কিভাবে একনলা বন্দুক বানানো যায়, তা শিখেছে জয়ন্ত। সেইমত বাজার থেকে কেনা ছ’ইঞ্চি কলের পাইপটিকে ড্রিল করে সাইকেলের বেয়ারিং ঢুকতে পারার মতো ফুটো করে। এরপর সাইকেলের বেয়ারিংএর সঙ্গে চকলেট বোমের বারুদ মিশিয়ে বানানো হয় গুলি। ট্রিগার টানার পর সেটি ঠিকমতো কাজ করছে কিনা তা যাচাই করতে নিজের বাড়িতেও কয়েকবার পরীক্ষা করে সে। তারপরই প্রিয়াঙ্কাকে খুন করতে যায়। খুনের পর গা ঢাকা দেওয়ার ইচ্ছা থাকলেও তা সম্ভব হয় না। ধৃত জয়ন্তকে আলিপুর আদালতে পেশ করেছে রিজেন্ট পার্ক থানার পুলিশ। জয়ন্তকে জিজ্ঞাসাবাদ করে জানার চেষ্টা চলছে ওই ঘটনায় আরও কেউ জড়িত কিনা।

Facebook Twitter Print Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *