রাতারাতি ভারতে চিনা অ্যাপ বন্ধ করে দেওয়ায় কি প্রতিক্রিয়া দিল চিন?

India

Mysepik Webdesk: গত ১৬ জুন রাতে লাদাখ সীমান্তে ভারতীয় সেনার ওপর আক্রমণ করার ঘটনার ঠিক ১৫ দিনের মাথায় কড়া জবাব দিল ভারত। সোমবার রাতারাতি ভারতে ব্যান করে দেওয়া হল ৫৯টি চিনা অ্যাপ। যাকে এককথায় বলা হয় ডিজিটাল স্ট্রাইক। রাতারাতি হাজার হাজার কোটি টাকার ব্যবসা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় স্বাভাবিকভাবেই কপালে ভাঁজ পড়েছে চিন সরকারের।

আরও পড়ুন: উড়িয়ে দেওয়া হবে মুম্বাইয়ের তাজ হোটেল! পাকিস্তান থেকে ফোনে হুমকির জেরে বাড়ানো হল নিরাপত্তা

এই প্রসঙ্গে চিনের বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র ঝাও লিয়াং তাঁর প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। তিনি সংবাদমাধ্যমকে একটি সাক্ষাৎকারে বলেন, “গোটা বিষয়টিতে চিন অত্যন্ত উদ্বিগ্ন। পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে দেখা হচ্ছে। আমরা সবসময়ই সমস্ত চিনা সংস্থাকেই আন্তর্জাতিক নিয়মকানুন মেনে চলার পরামর্শ দিই। ভারত সরকারের পূর্ণ অধিকার আছে, যে কোনও বিদেশি সংস্থাকে আইনবিরুদ্ধ কাজ করতে বাধা দেওয়ার।”

আরও পড়ুন: করোনার আবহে সংক্রমণ আটকাতে বদলে দেওয়া হচ্ছে ট্রেনের এসি কামরার প্রযুক্তি

উল্লেখ্য, সোমবার রাতে ৫৯টি চিনা মোবাইল অ্যাপ ব্যান করা হয় ভারতে। এই তালিকায় TikTok এবং UC Browser-এর নামও রয়েছে। কেন্দ্রীয় ইলেকট্রনিক্স ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রকের তরফে এই সংক্রান্ত নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। ৫৯টি চিনা অ্যাপের বিরুদ্ধে তথ্য়প্রযুক্তি আইনের ৬৯এ ধারা এবং ২০০৯ সালের তথ্যপ্রযুক্তি বিধির সংশ্লিষ্ট ধারা প্রয়োগ করেছে সরকার। দেশের সার্বভৌমত্ব, প্রতিরক্ষা এবং জাতীয় নিরাপত্তার স্বার্থে এই পদক্ষেপ নেওপিয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে কেন্দ্র। অবিলম্বে এই নির্দেশ সারা দেশজুড়ে কার্যকর হবে।

Facebook Twitter Print Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *