গত সাতদিনে মোট ৪০,৩০০ বার ভারতে সাইবার হানার চেষ্টা করেছে চিনা হ্যাকাররা

Mysepik Webdesk: পূর্ব লাদাখের গালওয়ানে ভারতীয় সেনার সঙ্গে চিন সেনার সংঘর্ষ হওয়ার পর থেকেই একসপ্তাহ ধরে এই নিয়ে মোট ৪০,৩০০ বার ভারতে সাইবার হানার চেষ্টা করা হয়েছে। আইপি এড্রেসগুলি (IP Address) খতিয়ে দেখে ভারতের নিরাপত্তা বিষয়ক সংস্থাগুলি দাবি করেছে, ওই আইপি এড্রেসগুলি সবকটিই চিনের। গালিবানের ঘটনার পর থেকেই চিনের হ্যাকাররা (Chinese Hackers) বিভিন্ন সময়ে মোট ৪০,৩০০ বার ভারতীয় সাইবার স্পেসে (Cyber Space) হামলার চেষ্টা করেছে।

আরও পড়ুন: করোনা আপডেট: রাজ্যে কমেছে সক্রিয় আক্রান্তের সংখ্যা, বেড়েছে সুস্থ হওয়ার সংখ্যা

নিরাপত্তা সংস্থার (Security Agency) দেওয়ার তথ্য অনুযায়ী, সবচেয়ে বেশি হামলা হয়েছে চিনের সিচুয়ান প্রদেশ থেকে। আর এই সিচুয়ান প্রদেশই হল চিনের সাইবার যুদ্ধের আঁতুরঘর। এই ধরণের সাইবার হামলা চিনের ওই এলাকা থেকেই বেশি হয়ে থাকে। তবে বেজিংয়ের (Bejing) নির্দেশেই এই হামলা হয়েছিল কিনা, সেটা খতিয়ে দেখছেন বিশেষজ্ঞরা। শিষজ্ঞরা জানিয়েছেন, চিনা হ্যাকাররা যেভাবে সাইবার অ্যাটাক করেছে, তা সরাসরি পিপলটস লিবারেশন আর্মি (PLA) করে না। তবে যারা এই ধরণের কার্যকলাপ করে থাকা তারা সরাসরি পিপলটস লিবারেশন আর্মি কর্তৃক নিয়ন্ত্রিত। তবে এর সঠিক মোকাবিলা না করতে পারলে বিপদ অবধারিত।

আরও পড়ুন: বেঙ্গালুরু স্ত্রীকে খুন করার পর সোমবারই কলকাতা ফেরে ফুলবাগান কাণ্ডের খুনি

ভারতীয় সাইবার স্পেসে এই হামলা চালাতে দু’ধরণের প্রযুক্তির সাহায্য নিয়েছে চিন। প্রথমটি ডিস্ট্রিবিউটেড ডেনিয়েল অফ সার্ভিস (Distributed Denial of Service)। যদি কোনও ইউটিলিটি প্রাইভেট ওয়েবসাইট (Utility Private Website) একসঙ্গে এক হাজার অনুরোধে সাড়া দেওয়ার ক্ষমতা রাখে, তাহলে চাইনিজ হ্যাকাররা সেই ক্ষমতা ১০ লক্ষে বাড়িয়ে দেয়, যার জেরে পুরো ওয়েবসাইটটা ক্র্যাশ করে যাবে। আর দ্বিতীয়টি হল ইন্টারনেট প্রোটোকল হাইজ্যাক (Internet Protocol Hijack)। এই প্রযুক্তির মাধ্যমে যেকোনও ইন্টারনেট অ্যাকাউন্ট বা ট্র্যাফিককে চিন হয়ে ডাইভার্ট করা সম্ভব। এর ফলে ভারতের অজান্তেই চিন ভারতের গোপন তথ্যের ওপর নজরদারি করতে পারবে।

Facebook Twitter Print Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *