পেটের দায়েই ফের কর্মক্ষেত্রে ফিরতে বাধ্য হচ্ছেন পরিযায়ী শ্রমিকরা

Migrant Workers

Mysepik Webdesk: পেটের দায় বড় দায়। এই কিছুদিন আগেই প্রাণ হাতে নিয়ে, হাজারো কষ্ট সহ্য করে নিজের নিজের গ্রামের বাড়িতে ফিরেছেন তাঁরা। লক ডাউনের মধ্যে তাঁদের ঘরে ফেরার সেই দৃশ্য বিচলিত করে তুলেছিল গোটা দেশকে। কিন্তু আরাম দীর্ঘস্থায়ী হল না তাঁদের। পেটের দায়েই ফের কর্মক্ষেত্রে ফিরতে বাধ্য হচ্ছেন পরিযায়ী শ্রমিকরা।

আরও পড়ুন: গ্যাসের দাম বিনিয়ন্ত্রণের পথে কেন্দ্র, তবে কি দাম বাড়ার আশঙ্কা?

ভারতীয় রেলসূত্রে খবর, বিশেষ করে বিহার এবং উত্তরপ্রদেশ থেকে ফিরতি ট্রেন ভর্তি করে মুম্বই, অহমদাবাদ, অমৃতসর, হাওড়া, দিল্লি এবং সিকন্দরাবাদে ফিরছেন শ্রমিকরা। তাঁর প্রমান পাওয়া যাচ্ছে ২৬ এবং ৩০ জুনের সংরক্ষণ তালিকায় দেখে। বিহার এবং উত্তরপ্রেশ থেকে ফিরতি ট্রেনে সংরক্ষণ তালিকায় ১০০ শতাংশ ওয়েটিল লিস্ট।

এই রাজ্যে গুলিতে অর্থনৈতিক কাজকর্ম শুরু হয়ে যাওয়ায় শ্রমিকদের চাহিদা দেখা দিয়েছে। ফলে অর্থ রোগজারের তাগিদে ফের কাজে ফিরছেন শ্রমিকরা। এর ফলে আর্থিক ক্ষেত্র কিছুটা আশা জাগালেও করোনা পরিস্থিতি যে আরও খারাপ হতে পারে সে বিষয়ে আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা।

আরও পড়ুন: ফুঁসছে ব্রহ্মপুত্র, অসমে বন্যা পরিস্থিতি আরও অবনতির পথে

রেল মন্ত্রক সূত্রে পাওয়া তথ্য বলছে যে বিহার ও উত্তরপ্রদেশ থেকে ফিরতি ট্রেনের মধ্য়ে অন্তত ৬৪টি ট্রেন পুরোপুরি ভর্তি। আরও ১১টি ট্রেনের ৯০ শতাংশের বেশি বুকিং হয়ে গিয়েছে।

এদিকে পরিযায়ী শ্রমিকরা নিজেদের রাজ্যে ফিরতেই হু হু করে বেড়েছিল করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। এই রাজ্যের ক্ষেত্রেও একই ঘটনা ঘটেছিল। তেমনই পরিযায়ী শ্রমিকরা ফের কর্মক্ষেত্রে ফেরার পর আবারও করোনা সংক্রমণ বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

Facebook Twitter Print Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *