পুরীর রথযাত্রার স্থগিতাদেশ পুনর্বিবেচনা করে পিটিশন দাখিল, স্বাক্ষর মুসলিম যুবকের

Mysepik Webdesk: ওড়িশায় পুরীর রথযাত্রা (Puri Rathyatra) করোনার কারণে স্থগিতাদেশ জারি করেছে সুপ্রিম কোর্ট। কিন্তু ভারতের সর্বোচ্চ আদালতের সেই রায়কে পুনর্বিবেচনার আর্জি জানিয়ে দাখিল করা হয়েছে একটি আবেদন। রথযাত্রার স্থগিতাদেশকে পুনর্বিবেচনা করার জন্য ইতিমধ্যেই ২১ জন ব্যক্তি ও সংগঠন এ বিষয়ে সুপ্রিম কোর্টে (Supreme Court) আবেদন করেছেন। কিন্তু সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য ঘটনা হল, এই আবেদনে রয়েছে ১৯ বছরের এক মুসলিম যুবকের নামও।

আরও পড়ুন: ফের বাড়লো পেট্রল-ডিজেলের দাম, এই নিয়ে একটানা ১৬ দিন

গত ১৮ জুন একটি রায় দানের মাধ্যমে পুরীর রথযাত্রায় নিষেধাজ্ঞা জারি করে সুপ্রিম কোর্ট। মূলত করোনা সংক্রমণের (Corona Virus) ঝুঁকি এড়ানোর জন্যই এবছরের রথযাত্রা স্থগিত রাখার নির্দেশ দেয় দেশের শীর্ষ আদালত। আদালতের দাবি, পুরীর রথযাত্রাকে ঘিরে লক্ষ লক্ষ মানুষের সমাগমের সম্ভাবনা রয়েছে। এর ফলে দেশে করোনা পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারে। সেই আশঙ্কা থেকেই এই নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট।

আরও পড়ুন: ঘাতক কমান্ডো মোতায়েন করা হল লাদাখের গালওয়ানে, পুরোপুরি যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত ভারত!

জানা গেছে, আদালতে পুনর্বিবেচনার আবেদন জানানো ওই পিটিশনে স্বাক্ষর করেছেন ১৯ বছর বয়সী আফতাব হোসেন (Aftab Hossain)। তিনি নয়াগড় অটোনামাস কলেজের বিএ অর্থনীতির থার্ড ইয়ারের ছাত্র। ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁকে রাজ্যের ‘দ্বিতীয় সালাবেগা’ হিসাবে ভাবতে শুরু করে দিয়েছেন নেটিজেনরা। সালাবেগা ছিলেন একজন মুসলিম মানুষ যিনি ভগবান জগন্নাথের এক বড় ভক্ত। আফতাব জানিয়েছেন, ১৯৬০ সালে তাঁর ঠাকুরদা ইতামতিতে একটি তৃণাথ (ব্রহ্মা, বিষ্ণু এবং মহেশ্বর) মন্দির নির্মাণ করেছিলেন।

Facebook Twitter Print Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *