মুখ্যমন্ত্রীর ভাতার ঘোষণাতেও কাটল না জট, ভাড়া বাড়ানোর দাবিতেই অনড় বাস মালিকেরা

Mysepik Webdesk: রাজ্যে বাস ভাড়া না বাড়ানোর অনুরোধ করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পরিবর্তে তিনি বেসরকারি বাস মালিকদের জন্য রাজ্য সরকারের তরফ থেকে আর্থিক সাহায্যেরও ঘোষণা করেছিলেন। কিন্তু তাতেও খুশি নয় বাস মালিকেরা। বাসমালিকদের একাংশ জানিয়েছেন, মুখ্যমন্ত্রীর আর্থিক প্যাকেজের ওপর ভরসা করে তারা রাস্তায় বাস নামাতে রাজি নন। পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রীর প্যাকেজে তাদের কোনও লাভ হবে না, উল্টে বাস চালাতে গিয়ে আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হবে। তাই তাদের দাবি, কোনও প্যাকেজ চাই না, বাসভাড়া বাড়াতে হবে।

আরও পড়ুন: উপসর্গ নেই, তাই অনেকেই জানেন না করোনা আক্রান্ত হয়েও সুস্থ হয়ে উঠেছেন: আইসিএমআর

শুক্রবার নবান্নে একটি সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেছিলেন, বাসের ভাড়া বাড়ানো যাবে না। পরিবর্তে সরকারের তরফ থেকে মাসে ১৫ হাজার টাকা করে তিন মাসের জন্য বাস মালিকদের ভাতা দেওয়া হবে। কিন্তু ওয়েস্ট বেঙ্গল মিনিবাস ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন মুখ্যমন্ত্রীর এই প্রস্তাবে রাজি নয়। শনিবার একটি বৈঠকের পর ওয়েস্ট বেঙ্গল মিনিবাস ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের এক প্রতিনিধি জানিয়েছেন, মাসে ১৫ হাজার টাকা মাসিক ভাতা দিলে তা দৈনিক ৫০০ টাকা করে দাঁড়াচ্ছে। কিন্তু পুরোনো ভাড়াতে বাস চালালে দৈনিক ক্ষতির পরিমাণ হবে প্রত্যেক বাস বা মিনিবাসপিছু দেড় থেকে দু’হাজার টাকা। তাই তারা মুখ্যমন্ত্রীর প্রস্তাব ফিরিয়ে দিচ্ছেন।

আরও পড়ুন: করোনা সংক্রমণের বাড়বাড়ন্ত, ফের লকডাউনে ফিরতে চলেছে কর্ণাটক!

মিনিবাস সংগঠনের বক্তব্য, তারা প্রত্যেক বাসপিছু ক্ষতির পরিমান উল্লেখ করেই ভাড়া বাড়ানোর বিষয়ে আলোচনা করতে গিয়েছিলেন। তাদের দাবি ছিল, বাসভাড়া বৃদ্ধি ছাড়া তাদের আর কোনও রাস্তা নেই। তাই বাসভাড়া বাড়িয়েই সমস্য়ার সুরাহা করা হোক। এই পরিস্থিতিতে রাস্তায় আদৌ কি বাস চলবে? সংগঠনের এক প্রতিনিধির বক্তব্য, কেউ যদি ক্ষতির মুখ দেখেও বাস চালাতে চায় তাহলে সংগঠন বাধা দেবে না। মোটকথা গোটা বিষয়টা এটাই দাঁড়ালো যে এই পরিস্থিতিতে আদৌ রাস্তায় বাসের দেখা মিলবে কিনা সেটাই এখন সবচেয়ে বড় প্রশ্ন।

Facebook Twitter Print Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *