ধর্ষণে বাধা পেয়ে দুষ্কৃতীরা জ্যান্ত জ্বালিয়ে দিল নাবালিকাকে

Mysepik Webdesk: ধর্ষণে বাধা, আর সেই কারণেই প্রবল আক্রোশে দুষ্কৃতীরা জ্যান্ত জ্বালিয়ে দিল এক নাবালিকাকে। জানা গেছে, ওই নাবালিকাটি সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী, বয়স ১৪ বছর। বাড়ি থেকে মাত্র ২০০ মিটার দূরেই ওই নাবালিকাকে অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় উদ্ধার হয়। রাইপুর সংলগ্নও অম্বিকানগরের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিল ওই কিশোরী। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, ওই নাবালিকার শরীরের প্রায় ৮০ শতাংশ পুড়ে গেছে। বুধবার মৃত্যু হয় তার। এই নারকীয় ঘটনায় যুক্ত থাকা দু’জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের মধ্যে একজন নাবালক।

আরও পড়ুন: রাজ্যে আগামী ৩১ জুলাই পর্যন্ত বাড়ছে লকডাউন, চলবে না কোনও ট্রেন, মেট্রো

বর্বরতম এই ঘটনাটি ঘটেছে ছত্তিসগড়ের বেমেতারা জেলায়। অভিযুক্তদের ইতিমধ্যেই গ্রেফতার করা হয়েছে। বেমেতারা পুলিশ সুপার বিমল ব্যস জানিয়েছেন, “অভিযুক্তদের ইতিমধ্যেই গ্রেফতার করা হয়েছে। পুলিশ হেফাজতে রয়েছে তারা। অভিযুক্তদের মধ্যে একজন নাবালক। তাদের মধ্যে একজনের বয়স ১৩ বছর, অন্যজন ২২ বছরের। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।”

আরও পড়ুন: প্রকাশ্যে এল সুশান্ত সিং রাজপুতের শেষ ময়নাতদন্তের রিপোর্ট, কি আছে সেই রিপোর্টে?

অভিযুক্তরা পুলিশকে জানিয়েছে, গত ২ জুন সোমবার অভিযুক্তেরা বাড়ির কাছেই ওই নাবালিকাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। কিন্তু ছাত্রীটি প্রবল বাধা দেওয়ায় তীব্র আক্রোশে তার গায়ে কেরোসিন তেল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। গুরুতর আহত অবস্থায় ওই ছাত্রীকে হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। মৃত্যুর আগে ওই নাবালিকার বয়ান রেকর্ড করা হয়েছে। ধৃতদের বিরুদ্ধে পকসো-সহ একাধিক ধারায় মামলা রুজু করেছে পুলিশ।

Facebook Twitter Print Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *