জঙ্গি সংগঠন চালানোর অভিযোগে কাবুলে ধৃত ১০ জন চিনা গুপ্তচর

Mysepik Webdesk: সন্ত্রাসবাদকে মদত দেওয়ার জন্য পাকিস্তানের নাম গোটা বিশ্বে কুখ্যাত। কিন্তু তলে তলে পাকিস্তানের পাশাপাশি চিনও যে সন্ত্রাসবাদকে মদত দেয়, তার প্রমান পাওয়া গেল এবার। সম্প্রতি আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুল থেকে গ্রেপ্তার হয়েছে চিনের ১০ জন গুপ্তচর। তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তারা কাবুলের বুকে বেশ কয়েকটি সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপের সঙ্গে পরোক্ষভাবে যুক্ত। এই ঘটনার পর বেজিংকে তাদের কাছে ক্ষমা চাইতে হবে দাবি করেছে আফগানিস্তান সরকার।

আরও পড়ুন: কৃষক আন্দোলনের বিষয়টি ভারতের বিদেশমন্ত্রীর সামনে তুলে ধরুন, আমেরিকার বিদেশমন্ত্রী পম্পেওকে চিঠি ৭ আমেরিকান সাংসদের

Apologise, Afghanistan tells China after busting its espionage cell in Kabul  - india news - Hindustan Times

একটি আন্তর্জাতিক সংবাদপত্রের রিপোর্ট অনুযায়ী, বেশ কিছুদিন ধরেই কুখ্যাত জঙ্গি সংগঠন হাক্কানি নেটওয়ার্কের সঙ্গে চিনের কয়েকজন ব্যাক্তি নিয়মিত যোগাযোগ রাখছিল। ধৃত চিনারা কাবুলের বসবাস করত। গোপন সূত্রে এই খবর পাওয়ার পর আফগানিস্তানের ন্যাশনাল ডিরেক্টরেট অফ সিকিউরিটি গোটা ঘটনাটির তদন্ত শুরু করে। তার তারপরেই তারা জানতে পারে হাক্কানি নেটওয়ার্কের সঙ্গে ওই চিনা ব্যক্তিদের যোগাযোগের কথা। আফগানিস্তান সরকারের ধারণা, মার্কিন সেনারা আফগানিস্তান ছাড়া শুরু করতেই বেজিং সেখানে নিজেদের প্রভাব বিস্তার করতে শুরু করে। আর সেই কারণেই তারা হাক্কানি নেটওয়ার্কের মাধ্যমে তালিবান জঙ্গিদের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করেছিল।

আরও পড়ুন: দীর্ঘ টালবাহানার পর ইউকে এবং ইইউর মধ্যে হল ব্রেক্সিট বাণিজ্য চুক্তি

Afghan Government Says Taliban Maintaining Ties With Al-Qaida | Voice of  America - English

এদিকে এই ঘটনা জানাজানি হয়ে যাওয়ায় বেজায় অস্বস্তিতে পড়েছে বেজিং। আফগানিস্তানের সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে তারা বিষয়টিকে ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করলেও আফগানিস্তান সরকার তাতে কিছুতেই রাজি হচ্ছে না। আফগানিস্তানের দাবি, প্রকাশ্যে বেজিংকে এই ঘটনার জন্য ক্ষমা চাইতে হবে। আর যতক্ষন না পর্যন্ত সরকারিভাবে বেজিং আফগানিস্তান সরকারের কাছে ক্ষমা চাইছে ততক্ষন পর্যন্ত তারা ধৃত জঙ্গিদেরকে বেজিংয়ের হাতে তুলে দেবে না।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *