কৃষক আন্দোলনের ১০৯ দিন: দিল্লি সীমান্তে কৃষকরা তৈরি করছেন পাকা বাড়ি

Mysepik Webdesk: কৃষকরা তিনটি নতুন কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে ১০৯ দিন ধরে দিল্লির সীমান্তে আন্দোলন করছেন। প্রবল শীতকে হার মানিয়ে মরশুম যখন বদল হতে শুরু করেছে, তখন প্রতিবাদস্থলেই পাকা বাড়ি তৈরি করা শুরু করেছেন তাঁরা। এখনও পর্যন্ত টিকরি সীমান্তে এরকম ২৫টি বাড়ি নির্মিত হয়েছে। কৃষকনেতারা ভরা গ্রীষ্মের প্রবল দাবদাহ শুরুর আগে এরকম আরও ১০০০ থেকে ২০০০ ঘর তৈরি করতে চান। এর বেশিরভাগই ঘর হরিয়ানা সংলগ্ন সিংঘু ও টিকরি সীমান্তে নির্মিত হবে বলে জানা গিয়েছে।

কৃষক সোশ্যাল আর্মি নেতা অনিল মালিক বলেছেন, “আমরা সীমান্তে ততগুলিই বাড়ি তৈরি করব, যতটা আমাদের মজবুত কৃষক ভাইদের ইচ্ছাশক্তি রয়েছে। আমরা নিশ্চিত যে, সরকারকে একদিন সমস্ত আইন প্রত্যাহার করতে হবে, তবে দীর্ঘ লড়াই করতে হলে প্রতিবাদকারীদের সুযোগ-সুবিধার ব্যাপারেও খেয়াল রাখতে হবে। গরম বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে আমরা এই বাড়িগুলিতে কুলারের ব্যবস্থা করব।

কৃষকদের সংগঠন বিকেইউ-এর সভাপতি মনজিৎ সিং রায় বলেছেন, “গরম থেকে বাঁচতে আমরা পাকা বাড়ি তৈরি করব।” বিক্ষোভের সঙ্গে জড়িত প্রবীণ মহিলাদের জন্য সেই বাড়িতেও এসি বসানো হবে। মনজিৎ আরও বলেছেন যে, “সরকার আমাদের থামানোর জন্য সব কিছু করছে। এখানকার এসএইচও আমাদের ঘর বানানো থেকে বিরত করার চেষ্টা করেছিল। কিন্তু আমরা পিছিয়ে যাচ্ছি না।”

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *