মা ইলিশ রক্ষার অভিযানে গ্রেফতার ১৭৮ মৎস্যজীবী, বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে ৯ কোটি টাকার জাল

Hilsha

Mysepik Webdesk: ১৪ অক্টোবর থেকে ৪ নভেম্বর পর্যন্ত চাঁদপুরসহ সারাদেশের নদ-নদীতে ইলিশসহ সকল ধরনের মাছ ধরায় নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে বাংলাদেশ সরকার। প্রজনন মরশুম হওয়ায় ‘মা’ মাছ সংরক্ষণে এই নিষেধাজ্ঞা। বাংলাদেশের মৎস্য ও প্রাণি সম্পদ মন্ত্রকের তরফে এক বিবৃতিতে একথা জানানো হয়।

আরও পড়ুন: বিশ্বের ক্ষুধা সূচকে পাকিস্তান, বাংলাদেশের পরে রয়েছে ভারতের নাম, চাঞ্চল্যকর রিপোর্ট

তবে মাত্র তিনদিনের মধ্যেই অবৈধ মৎস্য আহরণের জন্য মৎস্য আইন অনুযায়ী ১৭৮ জন মৎস্যজীবীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। একই সঙ্গে তাদের ৬ লক্ষ টাকা জরিমানা করেছে আদালত। এছাড়া দেশটির আটটি বিভাগ থেকে ৯ কোটি টাকা মূল্যের কারেন্ট জাল বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। শনিবার মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান ২০২০ বাস্তবায়নে তৃতীয় দিন অর্থাৎ শুক্রবার পর্যন্ত ৩ হাজার ৫৯ অভিযান চালানো হয়েছে। তাতে ৯ কোটি টাকা মূল্যের ৬৫ লাখ ৯৯ হাজার ২০০ মিটার দৈর্ঘ্যের কারেন্ট জালসহ ৪৪৫টি অন্যান্য অবৈধ জাল আটক করা হয়েছে। ২৭৩টি মামলা করা হয়েছে। ৩.৩৬ মেট্রিক টন ইলিশ মাছ আটক করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: ছোট্ট গ্রামের বাসিন্দা মাত্র দু’জন, তবুও বাড়ির বাইরে বেরলে তাঁরা মাস্ক পরেন

প্রসঙ্গত, এই ২২ দিন সারা দেশে ইলিশ আহরণ, পরিবহন, মজুত, বাজারজাত, কেনাবেচা ও বিনিময় সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়ে ছিল সরকারের তরফে। এই নিষেধাজ্ঞার অন্যথা হলে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে কড়া আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে মন্ত্রকের তরফে বিবৃতিতে জানানো হয়েছে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *