Latest News

Popular Posts

কলকাতার আর আহমেদ ডেন্টাল কলেজে করোনা আক্রান্ত ২৭

কলকাতার আর আহমেদ ডেন্টাল কলেজে করোনা আক্রান্ত ২৭

Mysepik Webdesk: বছরের শেষদিনেও রাজ্যজুড়ে করোনার দাপট অব্যাহত। প্রতিদিনই হু হু করে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। গোটা রাজ্যের মধ্যে কলকাতার অবস্থা আরও খারাপ। শুধুমাত্র কলকাতাতেই একদিনে ১,০৯৪ জন করোনা আক্রান্তের খোঁজ মিলেছে। এই পরিস্থিতিতে কলকাতার আহমেদ ডেন্টার কলেজ হাসপাতালে মোট ২৭ জন একসঙ্গে করোনা আক্রান্ত হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। একসঙ্গে ২৭ জনের করোনা হওয়ার ঘটনা রীতিমতো গোষ্ঠীসংক্রমণের বিষয়টিকেও উস্কে দিল।

আরও পড়ুন: ‘সুস্থ থাকুক বাংলা, বজায় থাকুক শান্তি-সম্প্রীতি’, নতুন বছরের শুভেচ্ছা রাজ্যপালের

সূত্রের খবর, কলেজের অধ্যক্ষ, লেডিজ হস্টেলের সুপার, রাজ্য ডেন্টাল কাউন্সিলের সভাপতি-সহ মোট ২৭ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। আক্রান্তদের মধ্যে রয়েছেন একজন অন্তঃসত্ত্বা চিকিৎসকও। শুধু তাই নয়, লেডিস হস্টেল সুপারের ১৪ বছরের মেয়ে পর্যন্ত কোভিড পজিটিভ। এই ঘটনায় রীতিমতো ভয়ের আবহ তৈরি হয়েছে গোটা হাসপাতালজুড়ে। রীতিমতো পরিষেবা ব্যাহত হওয়ার পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে শিয়ালদহ -র আহমেদ ডেন্টার কলেজ হাসপাতালে। আক্রান্ত প্রত্যেককেই বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: সাহিত্য অকাদেমি পুরস্কার পেলেন ব্রাত্য বসু

এদিকে রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা কমানোর উদ্দেশ্যে একাধিক পদক্ষেপ নিয়েছে রাজ্য সরকার। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ইতিমধ্যেই ব্রিটেন থেকে আগত ফ্লাইটের ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছেন। লোকাল ট্রেন এবং উড়ান পরিষেবার জেরে ফের বাড়ছে কোভিড, এমনটাই জানিয়েছেন তিনি। তবে, এই মুহূর্তে লোকাল ট্রেন, বাস পরিষেবা ও স্কুল-কলেজগুলির মতো গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলি বন্ধ করার পক্ষপাতী নন তিনি। অন্যদিকে, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ২১২৮ জন। রাজ্যের মধ্যে সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতি কলকাতার। রাজ্যের স্বাস্থ দপ্তরের রিপোর্ট অনুযায়ী, শহর কলকাতায় একদিনেই করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১০৯০ জন। মাত্র ২৪ ঘণ্টাতেই ১০০ শতাংশের কাছাকাছি বেড়েছে আক্রান্তের সংখ্যা।

টাটকা খবর বাংলায় পড়তে লগইন করুন www.mysepik.com-এ। পড়ুন, আপডেটেড খবর। প্রতিমুহূর্তে খবরের আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজটি লাইক করুন। https://www.facebook.com/mysepik

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *