উত্তরাখণ্ড বিপর্যয়ের ৫ম দিন, উদ্ধারকার্যের কৌশল পরিবর্তন, টানেলের মধ্যে ৭২ মিটার ভিতরে চলছে ড্রিলিং

Mysepik Webdesk: চামোলির তাপোবনে দুর্ঘটনার আজ পঞ্চম দিন। এনটিপিসি টানেলের মধ্যে আটকে পড়া ৩৯ শ্রমিককে উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। তবে পরিচালনার কৌশল পরিবর্তন করা হয়েছে। এখন টানেলের মধ্যে ৭২ মিটার ভিতরে তুরপুন করা হচ্ছে। নীচে ১৩ মিটার পর্যন্ত গর্ত হবে। এর পরে ভিতরে একটি ক্যামেরা রেখে নীচে থাকা দ্বিতীয় টানেলটি নিরাপদ কিনা, তা বোঝা যাবে।

আরও পড়ুন: উত্তরাখণ্ড বিপর্যয়ে মৃত বেড়ে ৩২, চালু হেল্পলাইন নম্বর

এই ড্রিলিং রাত ২টোর দিকে শুরু করা হয়েছিল। এখনও পর্যন্ত সাড়ে ছয় মিটার নীচ পর্যন্ত খনন করা হয়েছে। প্রথমে ৭৫ মিলিমিটার প্রস্থটি গর্ত করা হচ্ছে। তবে প্রায় এক মিটার পরে একটি সমস্যা হয়েছিল। যদিও এখন প্রায় ৫০ মিলিমিটার প্রস্থের একটি গর্ত তৈরি করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: দীপ সিধুর গ্রেপ্তারি সঠিক কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য বেঠিক: রকেশ টিকায়েত

এই টানেলের দৈর্ঘ্য প্রায় আড়াই কিলোমিটার। সেনাবাহিনী, আইটিবিপি, এনডিআরএফ এবং এসডিআরএফের দলগুলি আগামী বুধবারের মধ্যে সরাসরি সুড়ঙ্গে পৌঁছনোর চেষ্টা করেছিল। বুধবার উদ্ধারকারী দলটি সুড়ঙ্গের ভিতরের পরিস্থিতি জানতে ড্রোন এবং রিমোট সেন্সিং ডিভাইসের সহায়তা নিয়েছিল। তবে এই পদ্ধতি তেমন সাফল্য পায়নি।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *