অক্সিজেনের অভাবে মধ্যপ্রদেশে সরকারি হাসপাতালে মৃত্যু ৬ করোনা রোগীর

oxygen cylinder

Mysepik Webdesk: করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়েছে ভারতে। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা। পাশাপাশি মৃতের সংখ্যাও প্রতিদিন রেকর্ড সংখ্যায় বৃদ্ধি পাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে সবচেয়ে বেশি বিপাকে পড়েছে দেশের সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালগুলো। দেখা দিয়েছে বেডের অভাব। শুধু তাই নয় অভাব দেখা দিয়েছে চিকিৎসা সরঞ্জামেরও। এই পরিস্থিতিতে সবচেয়ে দুঃখজনক ঘটনা ঘটেছে মধ্যপ্রদেশের একটি সরকারি হাসপাতালে। সেখানে অক্সিজেনের অভাবে মৃত্যু হয়েছে অন্তত ৬ জন করোনা রোগীর। জানা গিয়েছে, তারা প্রত্যেকেই আইসিইউতে ভর্তি ছিলেন।

আরও পড়ুন: পিছিয়ে গেল এপ্রিল মাসের জয়েন্ট এন্ট্রান্স মেইন পরীক্ষা

হাসপাতালের পক্ষ থেকে এই ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানানো হয়েছে, মোট ৬২ জন রোগী আইসিইউতে ভর্তি ছিলেন। প্রত্যেকের অক্সিজেনের প্রয়োজন হয়ে পড়েছিল। সেই কারণে শনিবার সন্ধ্যার দিকে ধীরে ধীরে তরল অক্সিজেনের ঘাটতি দেখা যায়। সরবরাহ ব্যবস্থার ওপর চাপ কমে যাওয়ায় অক্সিজেন সরবরাহ কমতে থাকে। তাঁর ফলেই ঘটে এই মর্মান্তিক ঘটনা। তবে অন্যান্য রোগীরা সুস্থ রয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

আরও পড়ুন: কুম্ভমেলা থেকে দিল্লিতে ফিরলেই ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইন

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়, গত শনিবার সন্ধ্যার সময় থেকেই হাসপাতালে অক্সিজেনের টান পড়তে থাকে। তৎক্ষণাৎ অক্সিজেন সরবরাহকারী সংস্থার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে দ্রুত একটি অক্সিজেন ভর্তি গাড়ি হাসপাতালের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। কিন্তু সেই গাড়ি হাসপাতালে পৌঁছানোর আগেই মৃত্যু হয় ৬ জনের। এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে মধ্যপ্রদেশের কংগ্রেস সভাপতি কমল নাথ টুইট করে বিজেপি শাসিত সরকারের বিরুদ্ধে তাঁর ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তিনি প্রশ্ন করেন, আর কতদিন এই ভাবে অক্সিজেনের অভাবে রোগীর মৃত্যু হবে? যদিও সরকারের পক্ষ থেকে কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *