রাজ্য সরকারের কৃষকবন্ধু প্রকল্পের প্রথম কিস্তির টাকা পেলেন রাজ্যের ৬২ লক্ষ কৃষক

Mysepik Webdesk: একুশে ভোটের আগে তৃণমূল কংগ্রেস তাদের ইস্তেহারে অঙ্গীকার করেছিল যে, ক্ষমতায় আসলে ‘কৃষক বন্ধু’ প্রকল্পের মাধ্যমে রাজ্যের কৃষকদের ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত দেওয়া হবে। এবার সেই অঙ্গীকার রাখলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ‘কৃষক বন্ধু’ প্রকল্পের মাধ্যমে এবার রাজ্যের ৬২ লক্ষ কৃষক তাদের প্রথম কিস্তির টাকা পেলেন। জানা গিয়েছে, প্রথম কিস্তির টাকা হিসেবে কেউ ৫০০০ টাকা আবার কেউ ২০০০ টাকা পর্যন্ত পেয়েছেন। শনিবার কৃষকদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে পৌঁছে যায় সেই টাকা। জানা গিয়েছে, রাজ্যের ৬১,২১,৮৮০ জন কৃষকের অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠিয়ে দিয়েছে রাজ্য সরকার। এর জন্য রাজ্য সরকারের কোষাগার থেকে মোট ১,৮০০ কোটি টাকা খরচ হয়েছে।

আরও পড়ুন: বাংলায় আরও কমল করোনা সংক্রমণ, স্বস্তি নবান্নের

বিধানসভা ভোটের আগে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তৃণমূল কংগ্রেসের ইস্তাহারে যে ১০ টি প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, তার মধ্যে অন্যতম হল ‘কৃষক বন্ধু’ প্রকল্পে কৃষকদের প্রাপ্য অর্থের পরিমান দ্বিগুন করে দেওয়া। সেইমতো যে সব কৃষকদের এক একরের কম জমি আছে, তাঁরা ন্যূনতম ৪ হাজার টাকা পাবেন, এর আগে এই টাকার পরিমান ছিল ২ হাজার। এছাড়াও যাঁদের এক একরের বেশি জমি রয়েছে, তাঁরা পাবেন ১০ হাজার টাকা। এই টাকার অনেক আগে ছিল ৫ হাজার।

আরও পড়ুন: চুঁচুড়া শহরের ‘রবিনউড’ সন্দীপ রুদ্র

নবান্ন সূত্রে খবর, চলতি বছর ডিসেম্বর মাসে ওই প্রকল্পের দ্বিতীয় কিস্তি অনুযায়ী আরও ৫,০০০ টাকা কিংবা ২,০০০ টাকা কৃষকদের অ্যাকাউন্টে পৌঁছে দেওয়া হবে। রাজ্য সরকারের দাবি, ডিসেম্বর মাসের মধ্যে রাজ্যের প্রায় ৬৭ লক্ষ চাষিকে ‘কৃষক বন্ধু’ প্রকল্পের আওতায় অর্থ সাহায্য করা হবে। এই প্রকল্পে বছরে মোট ৪,৫০০ কোটি বরাদ্দ করেছে রাজ্য সরকার। রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে কৃষকদের সাহায্য করার ফলে রাজ্যে ‘কৃষক বন্ধু’ প্রকল্পের আওতায় কৃষকদের সংখ্যা আরও বাড়বে বলে মনে করছে তৃণমূল সরকার।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *