কলকাতায় তৈরি হতে চলেছে ঘোড়সওয়ার পুলিশকে নিয়ে একটি জাদুঘর, উদ্বোধন আগামী মাসে

Mysepik Webdesk: কলকাতায় তৈরি হতে চলেছে ঘোড়সওয়ার পুলিশকে নিয়ে একটি জাদুঘর। কলকাতা পুলিশ ডিসেম্বরে তার ঘোড়সওয়ার পুলিশের উপর একটি অনন্য জাদুঘর নিয়ে আসতে চলছে আগামী ডিসেম্বরে। ইতিহাসের শরিক এই ঘোড়া পুলিশ প্রায় দুই শতক ধরে নিজ ঐতিহ্য বহন করছে। কলকাতা পুলিশের কাছে এর গুরুত্ব কিন্তু এখনও কমেনি। আর ঐতিহ্যের স্মারক এই ঘোড়সওয়ার পুলিশ বা মাউন্টেড পুলিশের বহু উপাদান সংগ্রহ করে রাখতে একটি সংগ্রহশালা তৈরি করা হচ্ছে। এই সংগ্রহশালার সামনে বসানো হয়েছে অশ্বারোহী এক পুরুষের মূর্তি। আপাতত, মূর্তিটির কাজ এখন শেষের পথে। আগামী মাসেই হবে উদ্বোধন। জানা গেছে যে, কলকাতা পুলিশের কমিশনার সৌমেন মিত্র এই জাদুঘরের উদ্বোধন করবেন। উল্লেখ্য, এহেন সৌমেন মিত্র কিন্তু একজন প্রখ্যাত ইতিহাসবিদও।

আরও পড়ুন: বিজেপিতে অর্থ এবং নারীর চক্র! বিস্ফোরক টুইট তথাগত রায়ের

সিপাহি বিদ্রোহের সাত বছর আগে, ১৮৪০-এ ব্রিটিশরা মাউন্টেড পুলিশ বাহিনী তৈরি করেছিল। কীভাবে ব্রিটিশরা এই অশ্বারোহী পুলিশ বাহিনী তৈরি করেছিল, সে-সম্পর্কে জাদুঘরে বিশদ বিবরণ থাকবে। ব্রিটিশদের ছিল সদর দফতর। সেখানে কোনও খবর তুরন্দ পৌঁছে দেওয়ার জন্য পুলিশের দু’জন কর্মী ঘোড়সওয়ারি করত। তখনকার পুলিশ কর্মীরা ছিলেন ইংরেজ। ১৯০৫ থেকে নিয়ম বদলে যায়। সেই সময় থেকে ভারতীয়দেরও নিয়োগ শুরু হয়। কোনও জাহাজ দেখা গেলেই বন্দর মাস্টারকে জানানো হত সেই সময়। ১৮৪২-এ কলকাতার ময়দান এলাকায় টহল দেওয়ার জন্য মাউন্টেড পুলিশ রাখা হয়েছিল।

আরও পড়ুন: বিজেপি-র মিছিলকে কেন্দ্র করে ধুন্ধুমার মুরলীধর সেন লেনে, গ্রেফতার রীতেশ তিওয়ারি

আর এখন? ফুটবল ম্যাচ এবং ক্রিকেট ম্যাচের সময় স্টেডিয়ামে মাউন্টেড পুলিশ আইন-শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য মোতায়েন করা হয়। যখন কলকাতা ফুটবল লিগ এবং আইএফএ শিল্ডের জন্য প্রতিদিনের টিকিট বিক্রি করা হয়, তখনও দেখা যায় ঘোড়সওয়ার পুলিশ কর্মীরা সকাল থেকেই নিয়ন্ত্রণের কাজে লেগে পড়েছেন। ভিভিআইপি দায়িত্ব পালনের সময় কিংবা রেড রোডে প্রজাতন্ত্র দিবস এবং স্বাধীনতা দিবসে অনুষ্ঠিত কুচকাওয়াজের সময় মাউন্টেড পুলিশের অংশগ্রহণ অপরিহার্য। তাছাড়াও উত্তেজিত জনতাকে ছত্রভঙ্গ করতে তাদের জুড়িমেলা ভার।

আরও পড়ুন: বিজেপি ছাড়তে চেয়ে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিলেন জয় ব্যানার্জী

জাদুঘরটি সর্বস্তরের মানুষকে, বিশেষ করে কলকাতার ইতিহাসের উপর আগ্রহী ছাত্র এবং গবেষকদের আকর্ষণ করবে। উল্লেখ্য যে, এর আগে ডেপুটি কমিশনার সৌমেন মিত্র এপিসি রোডে পুলিশ মিউজিয়াম খুলেছিলেন। পরবর্তীতে এডিজি (অপারেশনস অ্যান্ড ট্রেনিং) হিসেবে তিনি বারাকপুরে স্বামী বিবেকানন্দ পুলিশ ট্রেনিং অ্যাকাডেমিও স্থাপন করেছিলেন। আর এই মিউজিয়ামে থাকতে চলেছে ঘোড়সওয়ার পুলিশের বহু দুষ্প্রাপ্য উপাদান। ঘোড়সওয়ার পুলিশের বর্তমান ওসি অভ্র চট্টোপাধ্যায়। তিনি জানিয়েছেন যে, অনেক ঐতিহাসিক ছবি তাঁদের সংগ্রহে রয়েছে। সেই ব্রিটিশ আমল থেকে হাল আমল পর্যন্ত কলকাতার অশ্বারোহী বাহিনীর চিত্র ফুটে উঠবে সংগ্রহশালায়। বিভিন্ন ঘোড়া নিয়ে দারুণ সব কাহিনি রয়েছে। কাজও শুরু হয়ে গিয়েছে ইতিমধ্যে। মিউজিয়াম ও মূর্তি একসঙ্গে উন্মোচন করবেন নগরপাল। বিষয়টির উদ্যোগ নিয়েছেন তিনিই।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *