আমির খানের বিজ্ঞাপন হিন্দুদের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত এনেছে, অভিযোগ বিজেপির

Mysepik Webdesk: সম্প্রতি একটি টায়ার প্রস্তুতকারক সংস্থার বিজ্ঞাপনে আমির খানকে দেখা গিয়েছে দীপাবলিতে সুরক্ষিতভাবে বাজি পোড়ানোর বিষয়ে সতর্ক করতে। সেই বিজ্ঞাপন ঘিরে উঠেছে যাবতীয় বিতর্ক। ওই বিজ্ঞাপন হিন্দুদের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত এনেছে, এমনই অজুহাতে সরব হয়েছে বিজেপি। শুধু তাই নয়, মুসলিম ধর্মালম্বীদের কেন তিনি কোনও সচেতনতার বার্তা দেন না, তা নিয়েও প্রশ্ন তোলে বিজেপি। পাশাপাশি বিজ্ঞাপন সংস্থাকে চিঠিও দেওয়া হয়েছে গেরুয়া শিবিরের পক্ষ থেকে।

আরও পড়ুন: চাঙ্কি পান্ডের কন্যা অনন্যা পাণ্ডের বাড়িতে গিয়ে তলবের নোটিস ধরালো NCB

সম্প্রতি ভারতের একটি টায়ার প্রপস্তুতকারক সংস্থার হয়ে বিজ্ঞাপন করতে দেখা গিয়েছে আমির খানকে। সেই বিজ্ঞাপনে তিনি রাস্তায় বাজি পোড়ানোর পাশাপাশি ছোটদের সতর্ক করেছেন বাজি পোড়ানোর ক্ষেত্রে। তাঁর এই বিজ্ঞাপন নিয়েই প্রশ্ন তোলেন কর্নাটকের উত্তর কন্নড়ের বিজেপি সাংসদ অনন্তকুমার হেগড়ে। তিনি বলেন, “উনি তো রাস্তায় বাজি পোড়াতে বারণ করলেন, কিন্তু নমাজের সময় রাস্তা বন্ধ করে রাখা ও মসজিদে মাইক বাজিয়ে আজানের বিষয়ে কিছু বললেন না। এই বিষয়েও তাঁর কিছু বলা উচিত ছিল।”

আরও পড়ুন: আর্থার রোড জেলে ছেলের সঙ্গে দেখা করে ফিরতেই শাহরুখের বাড়িতে হানা NCB -র

টায়ার প্রস্তুতকরণ সংস্থাকে রীতিমতো চিঠি দেন তিনি। ওই চিঠিতে তিনি লেখেন, “বিজ্ঞাপনে যে বার্তা আমির খান দিয়েছেন, তাতে হিন্দুদের মধ্যে অশান্তি সৃষ্টি হতে পারে। আমি আপনাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে চাই ইটা বলে যে, যেখানে প্রতি শুক্রবার নমাজের নামে রাস্তা বন্ধ করে রাখেন মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষরা। ওই সময় অ্যাম্বুল্যান্স ও দমকলের গাড়ি আটকে পড়ে। ট্রাফিকের সমস্যার জেরে বড়সড় ক্ষতি হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। বেশিরভাগ সময়ই মসজিদ থেকে আজানের শব্দ দূষণের মাত্রা ছাড়িয়ে যায়।’ আমি নিশ্চিত, একজন হিন্দু হিসেবে আপনি এই সমস্যা অনুভব করতে পেরেছেন। বর্তমানে হিন্দু বিরোধী অভিনেতাদের গোষ্ঠী সর্বদা হিন্দুদের ভাবাবেগে আঘাত দিতে তৎপর। কিন্তু, কখনওই তাঁদের সম্প্রদায়ের ভুল নিয়ে আমিরকে সরব হতে দেখা যায় না।”

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *