করোনা আবহে দেশে ৫ মাসে সাইকেল বিক্রি হয়েছে প্রায় ৪২ লক্ষ!

Mysepik Webdesk: দীর্ঘ লকডাউন কাটিয়ে শুরু হয়ে গিয়েছে আনলক পর্যায়। এখনও পর্যন্ত পুরোদস্তুর ট্রেন চলাচল শুরু না হলেও চলছে স্পেশাল ট্রেন। তবে শহরের রাস্তায় বাস, অটো, ট্রামের মত গণপরিবহন ব্যবস্থা চালু হলেও বহু মানুষ এখনও সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে যাতায়াত করার জন্য ভরসা করছেন ব্যক্তিগত যানবাহনের ওপর। আর সেই কারণেই দেশে বিক্রি বেড়েছে বাইক ও সাইকেলের।

আরও পড়ুন: দেড় মাস পর এই প্রথম ভারতে এক্টিভ করোনা আক্রান্তের সংখ্যা নামল ৮ লাখেরও নীচে

সর্বভারতীয় সাইকেল প্রস্তুত সংস্থার সংগঠন অল ইন্ডিয়া বাইসাইকেল ম্যানুফ্যাকচারার অ্যাসোসিয়েশনের (All India Bicycle Manufacturers Association) তথ্য অনুযায়ী, গত মে মাস থেকে সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যে দেশে মোট ৪১ লক্ষ ৮০ হাজার ৯৪৫টি সাইকেল বিক্রি হয়েছে। শুধু তাই নয়, চাহিদার পরিমান এত বেশি যে বড় শহরগুলিতেও এখনও পর্যন্ত বহু মানুষকে সাইকেল কেনার জন্য অপেক্ষা করতে হচ্ছে। কারণ সাইকেল প্রস্তুতকারক সংস্থাগুলি গ্রাহকদের বিপুল চাহিদা মেটাতে রীতিমতো হিমশিম খেয়ে যাচ্ছে।

আরও পড়ুন: প্রথম দফায় করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন পাবেন ভারতের ৩০ কোটি মানুষ

এই প্রসঙ্গে AICMA -এর সচিব কে বি ঠাকুর জানিয়েছেন, “এই প্রথমবার সাইকেলের বিক্রিতে এত বেশি লাভ হচ্ছে।” একটি সাইকেল প্রস্তুতকারক সংস্থার কর্ণধারের কথায় “আনলক পর্বের শুরু থেকেই দেশে দ্রুত সাইকেলের চাহিদা বাড়তে শুরু করেছে। এখনও পর্যন্ত ক্রেতাদের চাহিদা মেটাতে রীতিমতো হিমসিম খেতে হচ্ছে। তবে ধীরে ধীরে উৎপাদন আরও বাড়িয়ে পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে।” শহর কলকাতাতেও করোনা পরিস্থিতির কারণে শুধুমাত্র উড়ালপুলগুলি পার্ক স্ট্রিট, সেন্ট্রাল অ্যাভিনিউয়ের মতো ব্যস্ত রাস্তা ছাড়া কলকাতার দেশিরভাগ রাস্তাতে সাইকেল চালানোর ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হয়েছে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *