প্যারালিম্পিক্স গেমসে নেই আফগানিস্তান, তবু উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রইল আফগান ফ্ল্যাগ

Mysepik Webdesk: ‘তোমার পতাকা যারে দাও তারে বহিবারে দাও শকতি’। এমনটাই দেখা গেল মঙ্গলবার, টোকিও প্যারালিম্পিকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে। মঙ্গলবার একটি দারুণ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। প্রত্যেক দেশের প্যারা অ্যাথলেটদের একটি দল নিজ দেশের জাতীয় পতাকা নিয়ে প্যারেডে অংশ নিয়েছিলেন। এ-সময় এমন একটি ঘটনা দেখা গেল, যা সবাইকে আবেগপ্রবণ করে তোলে। আফগানিস্তানের কোনও ক্রীড়াবিদ এবং প্রতিনিধি টোকিও প্যারালিম্পিকে অংশ নিতে পারেননি। তবে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের প্যারেডে সসম্মানে ছিল আফগান ফ্ল্যাগ। এর মাধ্যমে সংহতি ও শান্তির বার্তা দেওয়া হয়েছিল।

আরও পড়ুন: ১৯৭১-এর ২৪ আগস্ট: পঞ্চাশ বছর পরে ফিরে দেখা ভারতের এক অলৌকিক জয়

চরমপন্থী সংগঠন তালিবান আফগানিস্তান দখল করেছে। যে কারণে সেখানকার পরিস্থিতি যথেষ্ট নাজুক। আফগানিস্তানের ন্যাশনাল প্যারালিম্পিক কমিটির (এনপিসি) কর্মকর্তারা এই অবস্থার কারণে প্যারালিম্পিকে অংশ না নেওয়ার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। জাকিয়া খুদাদাদি প্রথম মহিলা অ্যাথলেট, যিনি আফগানিস্তানের হয়ে প্যারালিম্পিকে অংশগ্রহণ করতেন। আফগানিস্তানের হয়ে তায়কোয়ান্দোয় অংশ নিতেন তিনি। এই ঐতিহাসিক মুহূর্তের সাক্ষী হতে পারলেন না তিনি।

আরও পড়ুন: অনন্য অলিম্পিক দর্শন

দেশটিতে বিমান চলাচলও বন্ধ। আন্তর্জাতিক প্যারালিম্পিক কমিটি (আইপিসি) প্যারালিম্পিকে অংশগ্রহণ করতে না পারা এই ক্রীড়াবিদদের সঙ্গে একাত্মতা দেখানোর জন্য আফগানিস্তানের পতাকা অন্তর্ভুক্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। আইপিসি রাষ্ট্রসংঘের শরণার্থী বিষয়ক হাইকমিশনারের প্রতিনিধিকে এখানে পতাকা বহনকারী হিসেবে ভূমিকা নেওয়ার জন্য আমন্ত্রণ জানায়। আইপিসির সভাপতি অ্যান্ড্রু পারসন্স বলেন, “বিশ্বব্যাপী সংহতি ও শান্তির বার্তা ছড়িয়ে দিতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।”

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *