মেডিসিন, পদার্থবিদ্যার পর এবার রসায়নে নোবেল পেলেন দুই নারী

Mysepik Webdesk: ইতিমধ্যেই মেডিসিন এবং পদার্থ বিদ্যায় নোবেল পুরস্কার প্রাপকদের কথা ঘোষণা করেছে নোবেল জুরিরা। এবার রসায়ন বিজ্ঞানে নোবেল প্রাপকদের কথা ঘোষণা করল তারা। এই বিভাগে ২০২০ সালের নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন ফরাসি বিজ্ঞানী ইমানুয়েল সারপেন্টিয়ের এবং মার্কিন বিজ্ঞানী জেনিফার এ. ডাউডনা। দ্য রয়েল সুইডিশ অ্যাকাডেমি অব সায়েন্সের একটি প্যানেল সুইডেনের স্টকহোমে স্থানীয় সময় সকাল ১১.৪৫ টার পরে রসায়েন নোবেল বিজয়ী হিসেবে এ দুই বিজ্ঞানীর নাম ঘোষণা করে।

আরও পড়ুন: পদার্থবিজ্ঞান বিভাগে যৌথভাবে নোবেল পেলেন তিনজন, গবেষণা করেছেন ‘ব্ল্যাক হোল’ নিয়ে

জিনোম গবেষণার ক্ষেত্রে নতুন পদ্ধতি আবিষ্কার করার স্বীকৃতিস্বরূপ এ বছরের নোবেল পেলেন ইমানুয়েল এবং জেনিফার। ‘ফ্রাঞ্চ প্রফেসর’ নাম পরিচিত ৫১ বছর বয়সী ইমানুয়েল কাজ করছেন জার্মানির বার্লিনের ম্যাক্স প্লাঙ্ক ইউনিট ফর দ্য সায়েন্স অব প্যাথোজেন্সে। তিনি বার্লিনের ম্যাক্স প্লাঙ্কের ইনস্টিটিউট ফর ইনফেকশন বায়োলজির ডিরেক্টর হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন। মাইক্রোবায়োলজি, জেনেটিক্স এবং বায়োকেমিস্ট্রিতে তার গবেষণা বহুল স্বীকৃত। অন্যদিকে ৫৬ বছর বয়সী মার্কিন প্রাণরসায়নবিদ জেনিফার যুক্তরাষ্ট্রের বার্কলির ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে একাধারে আণবিক জীববিজ্ঞান, কোষ জীববিজ্ঞান ও রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক।

আরও পড়ুন: ২০২০ সালে মেডিসিন বিভাগে যৌথভাবে নোবেল সম্মান পেলেন এঁরা

এঁরা ২০১২ সালে সর্বপ্রথম ব্যাক্টেরিয়ার ব্যবহৃত এনজাইম ক্রিসপার/ক্যাস৯ যে মনুষ্য নকশাকৃত জিন সম্পাদনায় ব্যবহার করা যেতে পারে, সে ব্যাপারে প্রস্তাবনা রাখেন। এই আবিষ্কার জীববিজ্ঞানের ইতিহাসে অন্যতম বৈপ্লবিক আবিষ্কার হিসেবে স্বীকৃত। প্রসঙ্গত, আগের দিন পদার্থ বিজ্ঞানে এ বছর যৌথভাবে নোবেল জিতে নিয়েছেন তিন জোতির্বিজ্ঞানী স্যার রজার পেনরোজ, রেইনহার্ড জেঞ্জেল এবং আন্দ্রেয়া এম. গেজ। ছায়াপথ (গ্যালাক্সি) এবং কৃষ্ণগহবর (ব্ল্যাকহোল) গবেষণায় বিশেষ ভূমিকা পালন করেছিলেন তাঁরা। এছাড়াও হেপাটাইটিস-সি ভাইরাস আবিষ্কার করার জন্য চিকিৎসা বিজ্ঞানে নোবেল পুরস্কার দেয়া হয় মার্কিন বিজ্ঞানী হার্ভে জে অল্টার ও চার্লস এম রাইস এবং ব্রিটিশ বিজ্ঞানী মাইকেল হিউটনকে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *