Latest News

Popular Posts

সেলফি বিক্রি করে কোটিপতি যুবক

সেলফি বিক্রি করে কোটিপতি যুবক

Mysepik Webdesk: বর্তমান প্রজন্ম সেলফির প্রজন্ম। বন্ধু-বান্ধবের সঙ্গে অবসর সময় কাটানো-আড্ডা দেওয়া থেকে শুরু করে মনের মানুষের সঙ্গে একান্তে সময় কাটানোর সেই সুন্দর মুহূর্তগুলোকে স্মার্টফোনের ক্যামেরায় বন্দি করে রাখতে আজকাল সকলেই চায়। আবার অনেকেই রয়েছেন, সেলফি তোলা তাঁদের কাছে অনেকটা নেশার মতো। যখন থেকে স্মার্টফোনের যুগ এসেছে, মানুষ সেলফি তোলার জন্য জন্য মানুষ পাগল হয়ে উঠেছে। কেউ সেলফি তোলেন শখে আবার কেউ তোলেন সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করার জন্য। কিন্তু, সেলফি বিক্রি করে কোটিপতি হওয়ার কথা শুনেছেন কখনও? শুনে না থাকলে এত প্রতিবেদনটি শেষ পর্যন্ত ধৈর্য ধরে পড়ুন।

আরও পড়ুন: আফগানিস্তানের ক্ষমতায় আসার পর প্রথম বাজেট অনুমোদন দিল তালিবান

মালয়েশিয়ার সেমারাং সেন্ট্রাল জাভার বাসিন্দা ২২ বছর বয়সী ঘোজালি সেলফি তোলার জন্যই এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল। জানা গিয়েছে, তিনি গত পাঁচ বছর ধরে প্রতিদিন একটি করে সেলফি তুলেছিলেন। সেলফি ক্যামেরা দিয়ে তিনি একের পর এক ভিডিও বানিয়ে গিয়েছেন। তিনি প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠেই সেলফি তুলতেন। এটা তাঁর কাছে নেশার মতো হয়ে গেলেও তিনি খুনাক্ষরে বুঝতে পারেননি, এই সেলফিই তাঁকে একদিন কোটিপতি করে তুলবে। পাঁচ বছর পর তাঁর সেলফি লাখ লাখ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। কারণ, তিনি তার সেলফিগুলিকে NFT-তে (Non Fungible Tokens) রূপান্তরিত করেছেন, যা থেকে তিনি এখন কোটি টাকা আয় করছেন।

আরও পড়ুন: ফের রকেট হামলায় কেঁপে উঠল বাগদাদের নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তাবেষ্টিত মার্কিন দূতাবাস

২০১৭ সাল থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত তিনি তাঁর কম্পিউটারের সামনে বসে প্রতিদিন নিজের ছবি তুলতেন। এখন তাঁর এই ছবিগুলো NFT অর্থাৎ Non Fungible Tokens-এ রূপান্তরিত হয়েছে। এটি একটি অনলাইন মুদ্রা। মানুষ ঘোঁজালির NFT কিনে নিজের কাছে জমা করতে চাইছে। সেই টাকা ঢুকছে ঘোজালির ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে। একটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, তিনি তাঁর সেলফি বিক্রি শুরু করেন ৯ জানুয়ারি থেকে। অর্থাৎ মাত্র পাঁচ দিনের মধ্যেই তিনি কোটি টাকারও বেশি টাকার NFT বিক্রি করেছেন। ইন্দোনেশিয়ার অনেক সেলিব্রিটি ঘোজালির ছবি বিক্রির বিজ্ঞাপনে মডেলের কাজ করেছেন।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *