করোনামুক্তির পর প্রত্যেক রোগীদের যক্ষার পরীক্ষা বাধ্যতামূলক করল রাজ্য সরকার

jokhha after corona

Mysepik Webdesk: করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর সেই রোগীর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায়। আর সেই সুযোগেই রোগীরা আক্রান্ত হচ্ছেন অন্যান্য রোগে। এই বিষয়ে আগেই সতর্ক করেছিলেন চিকিৎসকরা। সাধারণত দেখা গিয়েছে, করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর যক্ষ্মা রোগে আক্রান্ত হওয়ার প্রবণতা বেড়ে যায়। সেই কারণেই করোনা থেকে সেরে ওঠার পর করোনাজয়ীদের যক্ষ্মা পরীক্ষা করা বাধ্যতামূলক করল রাজ্য সরকার।

আরও পড়ুন: রাজ্যের হস্তশিল্পীদের পাশে দাঁড়াতে ‘সৃষ্টিশ্রী উৎসব’-এর আয়োজন রাজ্য সরকারের

সম্প্রতি রাজ্য সরকার একটি স্পষ্ট নির্দেশিকা জারি করেছে। সেই নির্দেশিকায় বলা হয়েছে করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ আসার পরেই তার ৭ থেকে ১০ দিনের মাথায় যক্ষ্মা পরীক্ষা করানো বাধ্যতামূলক। রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের তরফে জানানো হয়েছে, এখনো পর্যন্ত করোনা মুক্ত হওয়ার পর অন্তত ১৩২ জন রোগীর দেহে যক্ষ্মা সংক্রমণ মিলেছে। পাশাপাশি আরও ২০০০ জনের শরীর যক্ষ্মার লক্ষ্মণ দেখা গিয়েছে।

আরও পড়ুন: বোলপুরে কৃষি বিলের প্রতিবাদে আন্দোলনে সামিল বাম-কংগ্রেস

চিকিৎসকদের মতে যক্ষা এবং করোনা কারও শরীরে একসঙ্গে হলে পরীক্ষা ছাড়া তা সনাক্ত করা প্রায় অসম্ভব। সেক্ষেত্রে কোনও রকম ঝুঁকি না নিয়ে যক্ষার পরীক্ষা বাধ্যতামূলক করল রাজ্য সরকার।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *