অজানা জ্বর জলপাইগুড়ির পর এবার মালদা কাবু শিশুরা! অবশেষে সামনে এল কারণ

Shastha

Mysepik Webdesk: অজানা জ্বরে কাবু একের পর এক শিশু। গোটা উত্তরবঙ্গ জুড়ে ভয়াবহ উদ্বেগ। পরিসংখ্যান বলছে উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় ইতিমধ্যেই অন্তত ৭৬০জন শিশু ভাইরাল জ্বরে আক্রান্ত হয়েছে। একের পর এক আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়ায় স্বাভাবিকভাবেই আতঙ্ক ছড়িয়েছে স্থানীয়রা। কয়েকদিন ধরেই জলপাইগুড়ি-সহ শিলিগুড়ি এবং কোচবিহারের শিশুদের মধ্যেও বাড়ছে অজানা জ্বরের প্রকোপ। শিলিগুড়ি মহকুমা হাসপাতাল এবং উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভরতি আরও অনেকে। উত্তর এবং দক্ষিণ দিনাজপুরেও অজানা জ্বরের দাপট। হাসপাতালে ভরতি বহু শিশু। পশ্চিম বর্ধমানেও লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। 

আরও পড়ুন: রাজ্যসভার সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা, ‘বাংলার কাজ করতে আগ্রহী’, অভিষেককে চিঠি অর্পিতার

এবার সেই তালিকায় যুক্ত হয়েছে মালদার নাম। মালদায় অন্তত ১৯৬জন শিশু জ্বরে আক্রান্ত হয়েছে। এর সঙ্গে কয়েকজনের শ্বাসকষ্টও হচ্ছে। কোচবিহার, দুই দিনাজপুরেও জ্বরে আক্রান্ত হচ্ছে শিশুরা। তবে স্বাস্থ্য কর্তাদের দাবি এর সঙ্গে করোনার কোনও সম্পর্ক নেই বলেই প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে। তাদের করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। এদিকে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ টিম জলপাইগুড়ির পরিস্থিতি খতিয়ে দেখেছেন। 

আরও পড়ুন: রাজ্যে আরও বাড়ছে করোনা সংক্রমণ, উদ্বিগ্ন স্বাস্থ্যদপ্তর

জলপাইগুড়ির অজানা জ্বরের ১০টি নমুনা স্কুল অফ ট্রপিক্যাল মেডিসিনে পাঠানো হয়েছিল। তার মধ্যে দুটির ক্ষেত্রে ইনফ্লুয়েঞ্জা বি ভাইরাস এবং দুটির ক্ষেত্রে আরএস ভাইরাস পাওয়া গিয়েছে। একটি নমুনার ক্ষেত্রে এই দুটি ভাইরাস এর মিশ্রন পাওয়া গিয়েছে। বাকি ৩ টি নমুনার কোনও পজিটিভ ফল পাওয়া যায়নি। প্যারা ইনফ্লুয়েঞ্জা হতে পারে বলে অনুমান। তবে এই ৩টি নমুনা আবার পরে পরীক্ষা করা হবে। ২ টি নমুনা নষ্ট হয়ে গিয়েছিল। আগামীতে- বুধবারই বিশেষজ্ঞ কমিটির বৈঠক হয় এই নমুনা সামনে আসার পর। সেখানে চিকিৎসা প্রটোকল নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়। সিদ্ধান্ত হয়েছে ম্যালেরিয়া, ডেঙ্গি, স্ক্রাব টাইফাস-সহ এই ধরনের ব্যাকটেরিয়া ঘটিত রোগ আলাদা করে চিকিৎসা করতে হবে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *