এয়ার ইন্ডিয়ার আজব নিদান: ‘অস্ত্র বহনে’র অভিযোগে অলিম্পিক যোগ্যতা অর্জনকারী শ্যুটারকে বিমানে চড়তে বাধা সঙ্গে জরিমানা আদায়ের চেষ্টা

Mysepik Webdesk: ভারতীয় শ্যুটার মনু ভাকর দিল্লি বিমানবন্দরে এয়ার ইন্ডিয়ার কর্মকর্তা এবং সুরক্ষা কর্মীদের বিরুদ্ধে দুর্ব্যবহারের অভিযোগ করেছেন। মনুর অভিযোগ, প্রয়োজনীয় সমস্ত কাগজপত্র থাকা সত্ত্বেও তাঁকে ভোপাল যাওয়ার একটি ফ্লাইটে চড়তে বাধা দেওয়া হয়েছিল। ‘অস্ত্র বহন’ করার জন্য তাঁকে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে ১০,২০০ টাকা জরিমানার দাবি করা হয়েছিল। উল্লেখ্য, অলিম্পিক কোটা জেতা মনু মধ্যপ্রদেশ শ্যুটার অ্যাকাডেমিতে ট্রেনিংয়ের জন্য ভোপাল আসছিলেন। শুক্রবার রাত দশটায় তিনি ভোপালে পৌঁছেছিলেন। মনু বলেন, “আমার সঙ্গে অপরাধীদের মতো আচরণ করা হয়েছিল। সব কাগজ দেখানোর পরেও আমাকে সেখানে বসিয়ে রাখা হয়। এই প্রথম আমার সঙ্গে এইরকম আচরণ করা হল।”

আরও পড়ুন: মর্যাদার ডার্বিতে লাল হলুদকে হারিয়ে লিগ শীর্ষে সবুজ মেরুন

মনু তাঁর সঙ্গে এই ঘটনার তথ্য প্রধানমন্ত্রী, ক্রীড়ামন্ত্রী সহ একাধিক কর্মকর্তাকে ট্যাগ করে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন। ক্রীড়ামন্ত্রী কিরেন রিজিজু বিমানবন্দরের কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা। এরপর ফ্লাইটে উঠতে দেওয়া হয়েছিল ২০১৯-এ ১২তম এশিয়ান এয়ারগান চ্যাম্পিয়নশিপে মেয়েদের ১০ মিটার এয়ার পিস্তলে সোনা জেতা মনু ভাকরকে। তিনি ক্রীড়ামন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান। ক্রীড়ামন্ত্রী জবাব দেন, মনু দেশের গর্ব। মনু ভাকর বিশ্বকাপ এবং কমনওয়েলথ গেমস এবং যুব অলিম্পিক্সে দেশের হয়ে স্বর্ণপদক জিতেছেন। তিনি ২০১৮ সালে মেক্সিকোয় অনুষ্ঠিত আইএসএসএফ বিশ্বকাপে স্বর্ণপদক জিতেছিলেন। ২০১৮ সালে যুব অলিম্পিক গেমস দেশের হয়ে সোনা জেতেন তিনি। এছাড়াও ২০১৮ সালে কমনওয়েলথ গেমসে তিনি ১০ মিটার এয়ার পিস্তলে স্বর্ণপদকও জিতে দেশকে সম্মানিত করেছিলেন মনু।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

One comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *