আর্থিক সাহায্য তছরুপের অভিযোগ, পাকিস্তানকে একঘরে করার আহ্বান আমেরিকার

Mysepik Webdesk: এখনও পর্যন্ত ‘ফিনান্সিয়াল অ্যাকশন টাস্ক ফোর্স’-এর ধূসর তালিকা থেকে মুক্তি পায়নি পাকিস্তান। তার ওপর নতুন করে আর্থিক তছরুপের অভিযোগ উঠল পাকিস্তানের ওপর। ইসলামাবাদর বিরুদ্ধে রীতিমতো বিরক্তি প্রকাশ করে মার্কিন বিশেষজ্ঞরা গোটা বিশ্বকে আহ্বান জানালেন পাকিস্তানের সঙ্গে সবরকম সম্পর্ক ছিন্ন করার জন্য। তাঁরা দাবি করলেন, আমেরিকার কাছ থেকে পাওয়া আর্থিক সাহায্য নয়ছয় করেছে পাকিস্তান। সেই অর্থের সিংহভাগই পাকিস্তান ব্যায় করেছে সন্ত্রাসবাদীদের সাহায্য করার জন্য।

আরও পড়ুন: ভোটের দিন সাংবাদিক বৈঠক করলেন অধীর রঞ্জন চৌধুরী, কী জানালেন তিনি?

মার্কিন বিশেষজ্ঞ আর্থার হেরম্যান ‘দ্য হিল’ পত্রিকায় এই দাবি করেছেন তিনি জানান, আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের পর এখন আমাদের সময় এসেছে পাকিস্তানের ওপর আমাদের দৃষ্টিভঙ্গিকে নতুন করে মূল্যায়ন করার। মার্কিন নীতি নির্ধারকদের এবার ব্যাখ্যা করতে হবে, পাকিস্তানের মতো কেন এমন একটা দেশকে আমরা আর্থিক সাহায্য করে চলেছি যারা আমাদের শত্রুদের সঙ্গে দিব্যি হাত মিলিয়ে চলছে। বিশ্বের নিকৃষ্টতম দেশকে আজও আমরা পারমাণবিক প্রযুক্তি দিয়ে সাহায্য করে চলেছি। ওরা বারবার আমাদের সঙ্গে বন্ধুত্বের সম্পর্ককে প্রতারণা করেছে।”

আরও পড়ুন: গণতান্ত্রিক অধিকার প্রয়োগ করলেন জাকির হোসেন

প্রসঙ্গত, গত ২০০২ সাল থেকেই পাকিস্তানকে আর্থিক সাহায্য করে আসছে আমেরিকা। পরিসংখ্যান অনুযায়ী, এখনও পর্যন্ত পাকিস্তানকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র অন্তত ৩৩ বিলিয়ন ডলার সাহায্য করেছে। কিন্তু সেই পরিমান অর্থের সিংহভাগই পাকিস্তান খরচ করেছে সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপে। আর সেই কারণেই ২০১৮ সালের জুন মাসে ফিনান্সিয়াল অ্যাকশন টাস্ক ফোর্স পাকিস্তানকে ধূসর তালিকাভুক্ত করে। নির্দেশ দেওয়া হয়,সন্ত্রাসে মদত দেওয়া ও আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগ থেকে মুক্ত হতে পাকিস্তানকে একাধিক অ্যাকশন প্ল্যান মেনে চলতে হবে। কিন্তু, এখনও পর্যন্ত সেই ধূসর তালিকা থেকে মুক্তি পায়নি পাকিস্তান।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *