গর্ভবতী গৃহবধূকে খুনের অভিযোগ শ্বশুর বাড়ির বিরুদ্ধে

Howrah Death

Mysepik Webdesk: এক গর্ভবতী গৃহবধূকে খুনের অভিযোগ উঠল তার শ্বশুর বাড়ির বিরুদ্ধে। মৃতার নাম আবিদা খাতুন। তার পেটে সাত মাসের বাচ্চা আছে বলে জানিয়েছে মৃতার বাবার বাড়ির লোকজন। ঘটনাটি ঘটেছে পাইকর থানার রুদ্রনগর পঞ্চায়েতের দারিয়াপুর গ্রামে।

আরও পড়ুন: ভোটের আগেই বাংলার মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক অফিসে বড় রদবদল

রবিবার রাত এগারোটার পর শ্বশুর বাড়ির পরিবার আবিদা খাতুনকে খুন করেছে বলে তার দিদি এবং বাবা অভিযোগ করেছেন। মৃতা গৃহবধূ আবিদা খাতুনের বাবা ডালিম শেখ বলেন, আমার মেয়ের দশ মাস আগে বিয়ে হয়। আমার জামাই আমার মেয়েকে দেখতে পারত না, কাল রাত সাড়ে নটার সময় আমার মেয়ের সঙ্গে ফোনে কথা হয় তারপর রাত্রে সাড়ে এগারোটার পর খবর পাই আমার মেয়ে মারা গেছে। চার বছর আগে ওই গ্রামেই আমার বড় মেয়ের বিয়ে দিয়েছি। বড় মেয়ে খবর পেয়েই সঙ্গে সঙ্গে ওই বাড়িতে যায়। মেয়ে গিয়ে দেখে কিছুক্ষণ আগেই আবিদাকে শ্বাসরোধ করে খুন করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: কেন্দ্রীয় সরকারের ২০২১-এর বাজেট উদ্দেশ্যহীন: শশী পাঁজা

পাইকর থানার পুলিশ মৃত দেহকে রামপুরহাট মেডিক্যাল হাসপাতালে পোস্টট মার্টেম এ পাঠায়। মৃতার পরিবার পাইকর থানায় এফআইআর দায়ের করেছেন। পুলিশ এই ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করেছে বাকিরা পলাতক। গত ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

Similar Posts:

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *