পুজো শুরু হলেও দেউলটির পদ্মচাষে টানের কথাই শোনাচ্ছেন চাষিরা

অমিত গুছাইত

দুর্গাপুজোর কথা হলেই সবথেকে আগে মনে পড়ে কাশফুল, শিউলি ফুল এবং পদ্মফুলের কথা। পদ্মফুল এই উৎসবের বড় ভূমিকা পালন করে। বলা যেতে পারে পদ্মফুল ছাড়া পুজো সম্ভব না। পদ্মফুল যেমন করেই হোক জোগান চাই। তাই পদ্মের জন্য চাষিদের মুখ চেয়ে বসে থাকতে হয়। এই বছর তো চাষ হয়নি তেমন পদ্ম ফুলের। তাহলে পুজোয় জোগান কীভাবে সম্ভব? কথা বলেছিলাম পদ্ম চাষিদের সঙ্গে। দেখা করলাম হাওড়া জেলার দেউলটি নিবাসী অনিল জানা মহাশয়ের সঙ্গে। তিনি বেশ কিছু তথ্য তুলে দিলেন।

অনিলবাবু জানালেন, প্রতি বছরের মতোই এই বছরেও পদ্মের চাহিদা অগাধ। কিন্তু চাষ হয়েছে খুব কম। কারণ একে তো মহামারি করোনা, দ্বিতীয়ত আমফান ঝড়ের প্রভাবে বলা যায় সমস্ত নষ্ট হয়ে গেছে। তিনি আরও জানালেন, জবা দোপাটি ছাড়াও উনি দীর্ঘ ১৩ বছর রেলের খাদ জমা নিয়ে পদ্মফুল চাষ করে আসছেন। তবে এই প্রথম এমন খারাপ পরিস্থিতির মধ্যে পড়েছেন।

ওনার কথায় ফুল তেমন ভালো হয়নি। তাই এই বছর ফুলের জোগান খুব কম। দাম অনেক বেশি। বিশ্বকর্মা পুজোর পর থেকে পদ্মফুল স্টোর করতেন। কিন্তু এই বছর তা আর সম্ভব হয়নি। তাই উনি ফুল বিদেশেও পাঠাতে সক্ষম হননি। যতটুকু ফুল পেয়েছেন, তা লোকাল বাজারে বিক্রি করছেন। গতবছরের তুলনায় এই বছর কিছুটা দাম বেশি। দাম জানতে চাওয়াতে উনি জানান, ২৫ টাকায় একটি বিক্রি করছেন পাইকারদের। এখন আরও দাম বাড়বে। তাই যতই দাম হোক দুর্গাপুজোতে পদ্মফুল চাই-ই চাই। আর বাঙালি তা জোগাড় করবেই।

ছবি লেখক

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *