Latest News

Popular Posts

কংগ্রেসের ম্যারাথন দৌড়ে পদপিষ্টের ঘটনায় নেতাদের বিরুদ্ধে দায়ের হবে এফআইআর

কংগ্রেসের ম্যারাথন দৌড়ে পদপিষ্টের ঘটনায় নেতাদের বিরুদ্ধে দায়ের হবে এফআইআর

Mysepik Webdesk: উত্তরপ্রদেশের বেরলির বিশপ মণ্ডল ইন্টার কলেজের মাঠে গতকাল আয়োজিত হয়েছিল কংগ্রেসের ‘লেড়কী হুঁ, লড় শকতি হুঁ’, ম্যারাথন। এই ম্যারাথনে পদপিষ্টের ঘটনা ঘটে। ম্যারাথন শুরু হতে না হতেই অংশ নেওয়া মেয়েদের অনেকেই পড়ে যান। তাঁরা ভয় পেয়ে চিৎকার করতে থাকেন। পদপিষ্টের এই ঘটনায় আহত হয়েছেন ২০ জনেরও বেশি মেয়ে। এরমধ্যে ৩ জনের আঘাত বেশ গুরুতর।

আরও পড়ুন: মইরাং-এ নতুনভাবে গড়ে ওঠা আইএনএ যুদ্ধ স্মৃতিস্তম্ভ এবং মিউজিয়াম রং লাগাল নেতাজির ১২৫তম বর্ষপূর্তিতে

এই ঘটনায় বেশ সরগরম রাজনৈতিক মহল। হাত শিবিরকে দোষারোপ করেছে বিজেপি। অন্যদিকে, কংগ্রেসও বিজেপির বিরুদ্ধে অভিযোগ হানছে। তবে জানা গিয়েছে, ঘটনায় পদপিষ্টের মামলায় কংগ্রেস নেতাদের বিরুদ্ধে এফআইআর করা হবে। সিটি ম্যাজিস্ট্রেটের তদন্তে করোনার গাইডলাইন লঙ্ঘনের ঘটনা সামনে এসেছে। সিটি ম্যাজিস্ট্রেট তদন্ত রিপোর্টটি ডিএম মানবেন্দ্র সিংয়ের কাছে পাঠিয়েছেন। এরপর ডিএম একটি এফআইআর নথিভুক্ত করার নির্দেশ দিয়েছেন।

আরও পড়ুন: করোনায় আক্রান্ত দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী, বিজেপি নেতা কপিল মিশ্র বললেন ‘সুপার স্প্রেডার’

ম্যারাথনের আয়োজকরাও করোনা প্রটোকল মানেননি। মঙ্গলবার ৫ কিলোমিটার ম্যারাথন দৌড়ের আয়োজন করেছিল কংগ্রেস। বিপুল সংখ্যক মেয়ে দৌড়ে অংশ নিতে বিশপ মণ্ডল ইন্টার কলেজের মাঠে পৌঁছেছিলেন। অভিযোগ, যেখান থেকে মেয়েদের ম্যারাথন শুরু হয়েছিল, তার কাছাকাছি জায়গার নর্দমার কভার ঠিকমতো আটকানো হয়নি। রেফারি ‘গো’ বলার সঙ্গে সঙ্গে সামনে থাকা এক ছাত্রী নর্দমার কভারে হোঁচট খান। পড়ে যান তিনি। এরপর পিছন থেকে আসা একের পর এক মেয়ে ধাক্কা খেয়ে পড়ে যেতে থাকেন। পদপিষ্টের ঘটনা ঘটে। এরপর শোনা যায় কান্নার আওয়াজ। দেখা যায়, মেয়েদের চপ্পল জুতো এদিক-ওদিক ছড়িয়ে-ছিটিয়ে আছে। দুর্ঘটনার পর অ্যাম্বুলেন্সের ব্যবস্থা করা হয়। আহত রানারদের চিকিৎসা চলছে। উল্লেখ্য, প্রিয়ঙ্কা গান্ধি উত্তরপ্রদেশে মহিলাদের গুরুত্ব বাড়ানোর বিষয় তুলে ধরে মনে’লেড়কী হুঁ, লড় শকতি হুঁ’ স্লোগান সামনে আনেন। এই স্লোগান নিয়েই উত্তরপ্রদেশে নির্বাচনী প্রচারে ঝড় তুলেছে হাত শিবির।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *