আরও এক গণধর্ষিতা দলিত তরুণীর মৃত্যু, সেই যোগিরাজ্যেই

Mysepik Webdesk: হাতরসের ঘটনা নিয়ে একদিকে যেমন দেশজুড়ে চলছে প্রতিবার, আবার অন্যদিকে বলরামপুরে ২২ বছর বয়সি এক দলিত তরুণী গণধর্ষণের শিকার হয়ে হাসপাতালে যাওয়ার পথে বুধবারই তার মৃত্যু হয়েছে। জানা গিয়েছে মেয়েটি একটি বেসরকারি সংস্থায় কাজ করতেন। ইতিমধ্যেই মেয়েটির মৃত্যুকালীন বয়ানের ভিত্তিতে দু’জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: হবে না অঞ্জলি দেওয়া কিংবা ভোগ বিতরণ করোনা আবহে দিল্লির দুর্গাপুজো এবার একেবারেই সাদামাটা

মৃত তরুণীর পরিবার পুলিশকে জানিয়েছে, মঙ্গলবার রাতে মেয়েটি কাজ থেকে বাড়ি ফেরেনি। অনেক খোঁজাখুঁজির পরেও কোনও সন্ধান মেলেনি। দীর্ঘ সময় পর গভীর রাতে অচৈতন্য অবস্থায় একটি রিক্সায় করে বাড়ি ফেরে মেয়েটি। তার হাতে তখন গ্লুকোজ স্যালাইনের সিরিঞ্জ লাগানো ছিল। তৎক্ষণাৎ মেয়েটির পরিবারের তরফ থেকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু হাসপাতালের যাওয়ার সময়ই তার মৃত্যু হয়। এরপরেই যুবতীর পরিবারের তরফ থেকে পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করা হয়।

আরও পড়ুন: আনলক ৫: আগামী ১৫ অক্টোবর থেকে খুলছে স্কুল, সিনেমা হল, সুইমিং পুল, পার্ক

মেয়েটির মায়ের অভিযোগ, মেয়েটিকে ধর্ষণের আগে কোনও ইনজেকশন দেওয়া হয়েছিল। অত্যাচার করার সময় তার হাত পা ভেঙে দেওয়া হয়েছিল। তার দাঁড়ানোর ক্ষমতা ছিল না। মৃত্যুর আগে যন্ত্রণায় কঁকিয়ে বলেছিল, “অসম্ভব যন্ত্রণা হচ্ছে, আমি আর বাঁচব না।” হাতরসের পরেই ফের আরও একটি ঘটনা ঘটল বলরামপুরে। একটার পর একটা এই ধরণের ঘটনায় নারী নিরাপত্তা নিয়ে রীতিমতো প্রশ্নের মুখে পড়ছে উত্তর প্রদেশের যোগী সরকার।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *