অলিম্পিকে খেলোয়াড়দের করোনা থেকে বাঁচাতে টোকিওয় তৈরি অ্যান্টি-সেক্স বেড

Mysepik Webdesk: ২৩ জুলাই থেকে জাপানের টোকিও এই শুরু হতে চলেছে অলিম্পিকের আসর। অসুর শুরুর আগেই গেম ভিলেজে অ্যাথলেটদের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর প্রকাশ্যে আসছে। আজই দুই ক্রীড়াবিদ আক্রান্ত হয়েছে করোনায়। তবে আয়োজকরা বিশ্বজুড়ে আগত খেলোয়াড় সহ কোচ এবং অন্যান্য কর্মীকে সর্বতোভাবে রক্ষা করবার চেষ্টা করছেন। জাপানের রাজধানীতে সম্প্রতি এর জন্য একটি ‘প্লেবুক’ প্রকাশিত হয়েছে। এতে অলিম্পিকের জন্য টোকিওতে আগত অতিথিদের জন্য অনেকগুলি বিধি-বিধান দেওয়া হয়েছে। এর সঙ্গে খেলোয়াড়দের মধ্যে শারীরিক সম্পর্ক রোধে অলিম্পিক আয়োজকরা একটি অভিনব পদ্ধতি গ্রহণ করেছেন। এই পদ্ধতিটি হল ‘অ্যান্টি-সেক্স বেড’।

আরও পড়ুন: অস্ট্রেলিয়াকে ৪-১ ব্যবধানে টি-২০ সিরিজে হারিয়ে দিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ

গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিক গেমসে টোকিওতে আগত গোটা বিশ্বের প্রায় সাড়ে ৯০ হাজার অতিথি থাকবেন। এরমধ্যে সাড়ে ১১ হাজার খেলোয়াড় এবং ৭৯ হাজার জন কোচ, সাপোর্ট স্টাফ সহ অন্যান্য কর্মীরাও রয়েছেন। আয়োজকদের সামনে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হল তাঁদের সকলকে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে বাঁচানো। এমন পরিস্থিতিতে তরুণ খেলোয়াড়দের শারীরিক সম্পর্ক করার বিষয়টি আয়োজকদের কাছেও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এই জন্য অলিম্পিক গেমসের আয়োজকরা স্পোর্টস ভিলেজের খেলোয়াড়দের জন্য অ্যান্টি-সেক্স বেড তৈরি করেছেন। পিচবোর্ড দিয়ে তৈরি এই বিছানার বিশেষত্ব হল, এগুলি কেবলমাত্র একজনের ওজন বহন করতে পারে। যেকোনও ধরনের ভারী বস্তু প্রয়োগের ফলে তা ভেঙে যেতে পারে।

আরও পড়ুন: অলিম্পিক ভিলেজে সংক্রামিত আরও ২, উদ্বেগ

২০১৬ সালের অলিম্পিক পদক প্রাপ্ত এবং আমেরিকান অ্যাথলেট পল কেলিমো নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে এই ‘লিঙ্গবিরোধী বিছানা’ বা অ্যান্টি-সেক্স বেডের ছবি শেয়ার করে লিখেছেন যে, “খেলাধুলার পাশাপাশি অন্যান্য কিছু বিষয় রোধ করতে টোকিও অলিম্পিক গেমস ভিলেজে বিছানা বসানো হয়েছে।”

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *