‘উধাও’ হয়ে গেলেন বীরভূমের দাপুটে নেতা অনুব্রত মণ্ডল!

Mysepik Webdesk: ইলেকশন কমিশনের নির্দেশে মঙ্গলবার নজরবন্দি করা হয়েছিল বীরভূমের দাপুটে নেতা অনুব্রত মণ্ডলকে। শুক্রবার সকাল ৭টা পর্যন্ত তাঁকে নজরবন্দি করে রাখার নির্দেশ ছিল। তারপরের দিন অর্থাৎ বুধবার সকাল ১১টা ৪০ মিনিটে বাড়ি থেকে বেরনোর পরে ‘উধাও’ হয়ে যায় তাঁর গাড়ি। তারপর থেকেই তাঁর কোনও খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। তাঁর অন্তর্ধানের সময় তাঁর গাড়ির পেছনের গাড়িতেই ছিলেন ম্যাজিস্ট্রেট ও ৮ জন আধাসেনা। এরপর আড়াই ঘণ্টা অনুব্রতকে খুঁজেই চলল কমিশন। পরে অবশ্য তার খোঁজ পাওয়া গেল তারাপীঠের মন্দিরে। তবে এই প্রথম নয়, এর আগেও অনুব্রতকে নজরবন্দি করার পরে তিনি হারিয়ে গিয়েছিলেন। পড়ে অবশ্য ধরে দেন তিনি নিজেই।

আরও পড়ুন: বাংলা কল্পবিজ্ঞান জগতে নক্ষত্রপতন, করোনায় প্রয়াত লেখক অনীশ দেব

জানা গিয়েছে, লাভপুর থেকে তিনি আমোদপুরের দিকে যাওয়ার সময় তাঁর গাড়ির পেছনের গাড়িতেই ছিলেন কমিশনের আধিকারিকরা। আগামীকাল বীরভূমে নির্বাচন। নির্বাচনের আগেই যে অনুব্রত মণ্ডলকে নজরবন্দি করা হতে পারে, তার আভাস আগেই মিলেছিল। সেইমতো মঙ্গলবার বিকেলে ইলেকশন কমিশন তাঁকে নজরবন্দি করার নির্দেশও দেন। এই অষ্টম দফা নির্বাচনের আগে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক কেন্দ্রীয় বাহিনী নিয়োগ করা হয়েছে বীরভূমে। নজরবন্ধী হওয়ার পরেই অবশ্য অনুব্রত বলেছিলেন, “আমাকে নজরবন্দি করা কমিশনের রুটিন ডিউটি। ১৪ সালের খাতা খুলছে, রুটিনে যা আছে তাই করতে হবে। ভালই হয়েছে। কোনও লোকসান নেই। আমি যেখানে যাব, ওঁরাও সঙ্গে ছুটবে। ফাইন খেলা হবে, যাঁরা সঙ্গে থাকবে গোলটা পাস করে দেবে। ভয়ঙ্কর খেলা হবে।” ফলে এদিন থেকে কার্যত খেলা শুরুই করে দিলেন অনুব্রত।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *