আপনার বয়স ৪৫ এর বেশি? আপনি কী করোনার টিকা পেতে চান? জেনে নিন কীভাবে

Mysepik Webdesk: বুধবার সকালেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর ঘোষণা করেছিলেন, ১ মার্চ থেকে দেশজুড়ে শুরু হবে করোনার টিকাকরণের দ্বিতীয় দফা। দ্বিতীয় দফায় টিকাকরণের জন্য শুধুমাত্র তারাই প্রাধান্য পাবেন যাদের বয়স ৬০ বছরের বেশি এবং ৪৫ বছরের উপরের ব্যক্তিরা যাদের কো-মর্বিডিটি রয়েছে। আপনার বয়স যদি ৪৫ বছরের বেশি হয়ে থাকে এবং আপনার যদি কো-মর্বিডিটি থেকে থাকে, তাহলে আপনিও পেয়ে যাবেন করোনা টিকার ডোজ। প্রকাশ জাভড়েকর জানিয়েছেন, এই পর্যায়ে দেশজুড়ে প্রায় ২৭ কোটি মানুষের টিকাকরণ করা হবে। জেনে নিন আপনি যদি ওই তালিকায় থেকে থাকেন, তাহলে কীভাবে আপনি পাবেন এই টিকা।

আরও পড়ুন: ফের একধাক্কায় অনেকটা বাড়ল গ্যাসের দাম

Air pollution: Environment Minister Prakash Javadekar says no direct  correlation with shorter life

এক্ষেত্রে আপনার কাছে থাকতে হবে চিকিৎসকের সই করা একটি মেডিক্যাল সার্টিফিকেট, যেখানে লেখা থাকবে ঠিক আপনি কতটা অসুস্থ। পাশাপাশি আপনার রোগরও উল্লেখ থাকতে হবে ওই সার্টিফিকেটে। রোগের তালিকায় রয়েছে হার্ট, কিডনি, ফুসফুস, লিভারের রোগের উল্লেখ। পাশাপাশি ডায়াবিটিস, ক্যানসার, মারাত্মক শ্বাসকষ্ট এবং মানসিক বা শিক্ষায় অক্ষমদের এই তালিকায় রাখা হবে। বোন ম্যারো বা স্টেম সেল ট্রান্সপ্লান্ট হয়েছে এমন রোগীকেও ওই তালিকাভুক্ত করা হবে। এমন ধরণের কোনও একটি রোগ রয়েছে যে ব্যক্তিদের তাঁদের একটি করে ‘হ্যাঁ’ বা ‘না’ লেখা ফর্ম দেওয়া হবে। সেখানে নিজেদের রোগের কথা উল্লেখ করতে হবে। এর পর সেটি একজন জেনারেল ফিজিশিয়ানকে দিয়ে স্বাক্ষর করাতে হবে। টিকা নেওয়ার আগে অবশ্যই প্রত্যেক ব্যক্তিকে ওই মেডিক্যাল রিপোর্ট দেখাতে হবে।

আরও পড়ুন: পয়লা মার্চ থেকে শুরু ভ্যাকসিনেশনের ২য় পর্ব, টিকাকরণ চলবে বেসরকারি হাসপাতালেও

Coronavirus: 57 Lakh Get Covid-19 Vaccine Shots In India, 3rd Highest After  US, UK

সরকারিভাবে এই টিকা পেতে গেলে কোনও খরচ হবে না। তবে বেসরকারি কোনও হাসপাতাল বা স্বাস্থ্যকেন্দ্র থেকে এই টিকা নিতে গেলে ৩০০ টাকা পর্যন্ত খরচ হতে পারে। নিজের নিকটতম টিকাকরণের কেন্দ্র খুঁজে নিতে কোউইন (CoWin) অ্যাপের মাধ্যমে নিজেদের নাম নথিভুক্ত করতে হবে এবং ওই অ্যাপের মাধ্যমেই জানা যাবে আপনার নিকটবর্তী স্বাস্থ্যকেন্দ্র বা হাসপাতাল, যেখানে টিকাপ্রদান করা হচ্ছে। প্রথম ডোজ নেওয়ার পর ওই অ্যাপই আপনাকে জানিয়ে দেবে দ্বিতীয় ডোজটা কবে নিতে হবে। যদিও এই অ্যাপ এখনও পর্যন্ত সাধারণ মানুষের জন্য চালু হয়নি, তবে কবে থেকে তা চালু হবে, সেটা অবশ্য এখনও পর্যন্ত জানা যায়নি।

Similar Posts:

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *