মেসির ম্যাজিকে গ্রুপ শীর্ষে আর্জেন্টিনা

Mysepik Webdesk: আর্জেন্টিনা কোপা আমেরিকার কোয়ার্টার ফাইনালে আগেই পৌঁছে গিয়েছিল। তাই বলিভিয়ার বিরুদ্ধে ম্যাচটি আর্জেন্টিনার ক্ষেত্রে ছিল কার্যত নিয়মরক্ষার। তবে এই ম্যাচটি জিতে গ্রুপের শীর্ষে থেকে আকাশি-সাদা বাহিনী কোয়ার্টার ফাইনালে যেতে পারবে কিনা, সেটাই ছিল দেখার। সমর্থকদের নিরাশ না করে বলিভিয়াকে ৪-১ গোলে হারিয়ে দিয়ে গ্রুপের এক নম্বর দল হয়েই কোয়ার্টার ফাইনালে খেলতে নামবে লিওনেল মেসির দল। আর্জেন্টিনার দলনায়ক লিওনেল মেসির ক্ষেত্রে এটি ছিল দেশের জার্সি গায়ে একটি নজির গড়ার ম্যাচও। তিনি জাতীয় দলের হয়ে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলার কৃতিত্ব অর্জন করলেন। দেশের হয়ে ১৪৮তম ম্যাচ খেলতে নেমে মেসি দু-দু’টি গোলও করলেন। এর ফলে তিনি ৭৫টি গোল করে ভারতীয় ফুটবল দলের অধিনায়ক সুনীল ছেত্রীকে ফের টপকে গেলেন। সুনীল ছেত্রীর আন্তর্জাতিক ম্যাচে গোল সংখ্যা ১১৮ ম্যাচ খেলে ৭৪।

আরও পড়ুন: রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে জিতে শেষ আটে স্পেন ও সুইজারল্যান্ড

এই ম্যাচে প্রথম গোল করতে আর্জেন্টিনাকে খুব একটা বেশি সময় ব্যয় করতে হয়নি। ৬ মিনিটের মাথায় লিও মেসির অনবদ্য অ্যাসিস্ট থেকে গোল করতে কোনও ভুল করেননি পাপু গোমেজ। ৩৩ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে স্কোরলাইন ২-০ করেন মেসি। এদিন আর্জেন্টিনা কোচ স্কালোনি দল নামিয়েছিলেন ৪-২-৩-১ ফর্মেশনে। প্রতিপক্ষের থেকে সমস্ত বিভাগেই এগিয়ে ছিলেন তাঁর ছেলেরা। গোটা ম্যাচে আর্জেন্টিনার বল পজিশন ছিল ৬৮ শতাংশ। ম্যাচে আধিপত্য বজায় ছিল মেসিদের।

আরও পড়ুন: শ্যুটিং বিশ্বকাপে সোনা জিতে অলিম্পিকের প্রস্তুতি ভালোই সারলেন রাহি স্বর্ণবাট

আর্জেন্টিনা তাদের তৃতীয় গোলটি পায় ৪২ মিনিটে। সার্জিও আগুয়েরো অসামান্য একটি পাস বাড়ান ‘এলএম১০’-কে। ডিফেন্স চেরা এই পাস থেকে বিপক্ষের গোলরক্ষককে একা পেয়ে বল বাঁ-পায়ের টোকায় বিপক্ষের জালে জড়িয়ে দেন মেসি। দ্বিতীয়ার্ধের ৬০ মিনিটে বলিভিয়ার হয়ে সাভেদ্রা ব্যবধান কমালেও কাজের কাজ তেমন কিছু হয়নি। এর ঠিক ৫ মিনিট পরে মার্টিনেজ গোল করে আর্জেন্টিনার পক্ষে স্কোরলাইন ৪-১ করেন। শনিবার অর্থাৎ ৫ জুলাই কোয়ার্টার ফাইনালের ম্যাচে ইকুয়েডরের মুখোমুখি হবে আর্জেন্টিনা। অন্য কোয়ার্টার ফাইনালের ম্যাচ ব্রাজিল মাঠে নামবে চিলির বিরুদ্ধে। শেষ আটের অন্য দু’টি ম্যাচ হল উরুগুয়ে বনাম কলম্বিয়া এবং পেরু বনাম প্যারাগুয়ে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *