বলিভিয়ায় উচ্চতার ম্যাচে জয়ী আর্জেন্টিনা

Mysepik Webdesk: ১৫ বছর পর বলিভিয়া জয় করল আর্জেন্টিনা। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ৩৬০০ মিটার উচ্চতায় লা পাজে বিশ্বকাপে যোগ্যতা অর্জন পর্বের এই ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হয়েছিল। তাই খুব স্বাভাবিকভাবেই উচ্চতা নিয়ে আলোচনা হচ্ছিল। প্রশ্ন ছিল যে, এত উচ্চতায় মানিয়ে নিতে পারবেন তো লিওনেল মেসিরা? তার উপর বলিভিয়া ম্যাচের আগে দলের তারকা ফুটবলার পাওলো দিবালা পেটের সমস্যার কারণে দল থেকে ছিটকে যান। সবমিলিয়ে চিন্তায় ছিলেন আর্জেন্টিনার কোচ লিওলেন স্কালোনি।

ম্যাচের প্রথমদিকে সেই আশঙ্কাই সত্য হতে শুরু করে। ২৪ মিনিটে মার্সেলো মার্টিনস সুন্দর হেড করে আর্জেন্টিনার জালে বল জড়িয়ে দেন। ১-০ এগিয়ে যায় বলিভিয়া। আর্জেন্টিনাকে তখন বেশ ছন্নছাড়া দেখাচ্ছিল। কিছুতেই যেন ছন্দ ফিরে পাচ্ছিলেন না আর্জেন্টিনার খেলোয়াড়রা। তবে বিরতিতে যাওয়ার সামান্য আগে বলিভিয়ার একটি ভুল আর্জেন্টিনার জন্য বসন্ত নিয়ে আসে। তাদের সেই ভুল থেকেই আকাশি-সাদা জার্সি পরে গোল করে স্কোরলাইন ১-১ করেন লাউতারো মার্টিনেজ।

বক্সের ভেতরে বল নিয়ে প্রবেশ করেছিলেন মার্টিনেজ। গোলে শট নিতে না পারলেও বিপক্ষ টিমের ডিফেন্ডার হুয়ান করাস্কো বল ক্লিয়ার করতে নিয়েছিলেন একটি শট। সেটাই বুমেরাং হয়ে যায়। সেই শট মার্টিনেজের শরীরে লেগে গোলে ঢুকে যায়। লাকি গোলে কপাল খোলে আর্জেন্টিনার। প্রথমার্ধ শেষ হয় ১-১ গোলে।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে থেকেই আর্জেন্টিনা চেষ্টা করে বল পজিশন নিজেদের দখলে রেখে ফুটবল উপহার দিতে। তবে আবহাওয়া দুয়োরানির মতো আচরণ করেছিল। এই আবহে ম্যাচের বয়স যখন ৭৫ মিনিট, মার্টিনেজ একটি গোলের সহজ সুযোগ মিস করেন। তাঁকে ঠিকানা লেখা পাস বাড়িয়েছিলেন মেসি। বলিভিয়ার গোলরক্ষক কার্লোস লাম্পে দারুণ দক্ষতায় দলের পতন রোধ করেন। মুহুর্মুহু আক্রমণ শানাতে থাকে আর্জেন্টিনা। এই অবহে আরও একটি অসামান্য পাস বানান মেসি। মেসির বাড়ানো সেই বল মার্টিনেজ দখলে নিয়ে পাস বাড়ান ফাঁকা দাঁড়িয়ে থাকা হোয়াকিন করেয়কে। ডি-বক্সের বাঁ-দিকে অরক্ষিত অবস্থায় দাঁড়িয়ে ছিলেন তিনি। ৭৯ মিনিটে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে যায় আর্জেন্টিনা। ম্যাচ শেষ হয় এই স্কোর লাইন অক্ষত রেখেই। ২০০৫ সালের পর বলিভিয়াকে হারিয়ে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের রাউন্ড রবিনে টানা দুই ম্যাচ জয় পেল আর্জেন্টিনা। এর আগের ম্যাচে ইকুয়েডরকে ১-০ হারিয়ে অভিযান শুরু করেছিলেন মেসিরা।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *