Latest News

Popular Posts

প্রবল তুষারপাতের ফলে হিমাচল প্রদেশের লাহুল-স্পিতিতে এখনও আটকে ৮০ জন পর্যটক

প্রবল তুষারপাতের ফলে হিমাচল প্রদেশের লাহুল-স্পিতিতে এখনও আটকে ৮০ জন পর্যটক

Mysepik Webdesk: ক্রমাগত খারাপ আবহাওয়া এবং প্রবল তুষারপাতের কারণে হিমাচল প্রদেশের লাহুল-স্পিতিতে এখনও পর্যন্ত আটকে রয়েছেন ৮০ জন পর্যটক। বৃহস্পতিবার বিপর্যয় মোকাবিলা দফতর সূত্রে এমনটাই জানানো হয়েছে। আটকে থাকা পর্যটকদের উদ্ধার করার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। প্রথম পর্যায়ে জেলা প্রশাসনের তরফে একটি সেনাবাহিনীর হেলিকপ্টার পাঠানো হলেও তখনও পর্যন্ত নিখোঁজ পর্যটকদের খোঁজ মেলেনি। পরে লাহুল-স্পিতি থেকে উদ্ধারকারী দল পাঠানো হলে জানা যায়, পর্যটকরা বাতালের কাছে কোনও একটি জায়গায় আটকে রয়েছেন।

আরও পড়ুন: ত্রিপুরায় ফের আক্রান্ত তৃণমূল, হামলা সাংসদ সুস্মিতা দেবের গাড়িতে

প্রশাসন জানাচ্ছে, খারাপ আবহাওয়ার কারণে ওই অঞ্চলের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়েছে, ফলে আটকে থাকা যাত্রীদের খোঁজ পেতে অসুবিধে হচ্ছে। ইতিমধ্যেই যাদেরকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে, তাঁদের পিডব্লুডির একটি রেস্ট হাউসে রাখা হয়েছে। প্রশাসনের তরফ থেকে তাঁদের প্রয়োজনীয় খাবার ও আশ্রয়ের ব্যবস্থা করা হয়েছে। অতিরিক্ত তুষারপাতের জন্য ওই এলাকায় কোনও ছোট গাড়ির পক্ষে যাওয়া সম্ভব হচ্ছে না। তবে শুক্রবারই প্রশাসন আট আসনের বড় গাড়ি পাঠানোর চেষ্টা করা করবে বলে জানা গিয়েছে।

আরও পড়ুন: তৃণমূলে যোগ দিয়েই বড়োসড়ো পদ পেলেন লুইজিনহো ফালেইরো

প্রসঙ্গত, গত ১৭ অক্টোবর ১১ জনের পর্যটকের একটি দল হিমাচল প্রদেশের পাহাড়ের শোভা উপভোগ করতে চন্দ্রতালে গিয়েছিলেন। সেখানে পর্যটকরা পৌঁছানোর পরেই আবহাওয়া একটু একটু করে খারাপ হতে শুরু করে। তুষারপাতের কারণে গ্রাম্ফু-কাজ়া হাইওয়ে বন্ধ হয়ে যায়। ফলে, যাত্রীরা আর ফিরতে না পেরে সেখানেই আটকে যান। জানা গিয়েছে, ৮০ জন পর্যটকদের মধ্যে ১৮ জন পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দা। বাকিরা গিয়েছিলেন দিল্লি, পঞ্জাব, হিমাচল প্রদেশ ও অন্যান্য রাজ্য থেকে। শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী, এখনও পর্যন্ত এলাকায় আবহাওয়ার বিশেষ উন্নতি হয়নি।

টাটকা খবর বাংলায় পড়তে লগইন করুন www.mysepik.com-এ। পড়ুন, আপডেটেড খবর। প্রতিমুহূর্তে খবরের আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজটি লাইক করুন। https://www.facebook.com/mysepik

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *