মেয়র হিসেবে সুব্রত মুখোপাধ্যায় মাত্র পাঁচ বছরেই খোলনলচে বদলে দিয়েছিলেন কলকাতার

Mysepik Webdesk: পশ্চিমবঙ্গের রাজনীতিতে সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের ভূমিকা অনস্বীকার্য। মেয়র হিসেবে মাত্র পাঁচ বছরেই বদলে দিয়েছিলেন কলকাতা শহরের খোলনলচে, যা এককথায় স্বীকার করতে বাধ্য হয়েছিলেন তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। শুধু কলকাতার চেহারাই নয়, ভোল বদলে দিয়েছিলেন পুরসভার কর্মীদের সংস্কৃতিও। আর সেই কারণেই একজন সর্বকালীন সফল মেয়র হিসেবে সুব্রত মুখোপাধ্যায়কে সেরার সার্টিফিকেট দিতে বাধ্য হয়েছিলেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য।

আরও পড়ুন: নির্দিষ্ট সময়ের জন্য ফাটানো যাবে পরিবেশবান্ধব বাজি, সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ বহাল রাখল হাইকোর্ট

মেয়র হিসেবে মাত্র পাঁচ বছর কাজ করার সুযোগ পেয়েছিলেন সুব্রত মুখোপাধ্যায়। তার মধ্যেই তিনি একাধিক পরিকল্পনা করেছিলেন কলকাতা শহরকে ঢেলে সাজানোর জন্য। তিনিই প্রথম ই এম বাইপাসে প্রায় কুড়ি কোটি টাকা ব্যয়ে কলকাতা গেট তৈরির পরিকল্পনা করেছিলেন। একজন প্রশাসক হিসেবে তিনি কতটা দক্ষ, মাত্র পাঁচ বছরের মধ্যেই তা তিনি দেখিয়ে দিয়েছিলেন। একথা শুধু বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যই নয়, একবাক্যে স্বীকার করতেন প্রয়াত সিপিএম নেতা তথা পশ্চিমবঙ্গের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জ্যোতি বসুও।

আরও পড়ুন: প্রয়াত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়

প্রসঙ্গত, গতকাল, দিওয়ালির দিন প্রয়াত হন রাজ্যের পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়। গত ২৪ অক্টোবর সকালে সকালে বাড়িতে থাকাকালীন অসুস্থ হওয়ার পর তাঁকে নিয়ে আসা হয় এসএসকেএম হাসপাতালে। শারীরিক পরিস্থিতি ক্রমশ খারাপ হয়ে যাওয়ায় তাঁকে হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক সরোজ মণ্ডলের তত্ত্বাবধানে আইসিইউ-তে ভর্তি করা হয়েছিল। দুপুরের খাবার কাওয়ার আগেই হালকা বুকে ব্যথা অনুভব করেন তিনি। তারপরে বাথরুম থেকে ফেরার পরই তাঁর ম্যাসিভ কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট হয়। এরপর সিপিআর দেওয়া হলেও আর সাড়া দেননি মন্ত্রী। তাঁর মৃত্যুতে রাজনৈতিক মহলে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *