করোনায় প্রয়াত হলেন হরিদেবপুর থানার অ্যাসিস্ট্যান্ট সাব-ইন্সপেক্টর

Tushar Kanti Kuley

Mysepik Webdesk: রাজ্যে করোনাভাইরাসের সংক্রামন দিন দিন বেড়ে চলেছে। ঠিক তেমনই সূস্থতার হারও বাড়ছে। তবে এই অতিমারী ভাইরাসের কারণে প্রাণ হারিয়েছেন বহু যোদ্ধা। কলকাতা পুলিশের আরও এক যোদ্ধা আজ বৃহস্পতিবার সকালে করোনাভাইরাসে জেরে প্রাণ হারালেন। প্রয়াত হলেন হরিদেবপুর থানার অ্যাসিস্ট্যান্ট সাব-ইন্সপেক্টর (এএসআই) তুষারকান্তি কুলে।

আরও পড়ুন: মাওবাদী নামাঙ্কিত পোষ্টার ঘিরে চাঞ্চল্য পাঁড়ইয়ের গ্রামে

কলকাতা পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, তুষারবাবু করোনা মোকাবিলায় একেবারে প্রথম সারিতে ছিলেন। সম্প্রতি তাঁর করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসলে তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তাঁর শ্বাসকষ্ট জনিত সমস্যা হচ্ছিলো। আজ বৃহস্পতিবার সকালে তিনি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

অ্যাসিস্ট্যান্ট সাব ইনস্পেক্টর তুষার কান্তি কুলে। হরিদেবপুর থানায় কর্মরত ছিলেন। একেবারে সামনের সারিতে থেকে লড়ছিলেন…

Posted by Kolkata Police on Wednesday, 23 September 2020

কলকাতা পুলিশের ফেসবুক পেজে শোকপ্রকাশ করে বলা হয়েছে, ‘অ্যাসিস্ট্যান্ট সাব ইনস্পেক্টর তুষার কান্তি কুলে। হরিদেবপুর থানায় কর্মরত ছিলেন। একেবারে সামনের সারিতে থেকে লড়ছিলেন করোনা-যুদ্ধে। কোভিডে আক্রান্ত হয়ে সম্প্রতি ভর্তি হন হাসপাতালে। প্রাণ হারালেন আজ। প্রয়াত সহকর্মীর শোকসন্তপ্ত পরিবারের পাশে আমরা আছি, এবং থাকব সর্বতোভাবে।’

আরও পড়ুন: ১৬ ডিসেম্বরের মধ্যে মিটিয়ে দিতে হবে বকেয়া মহার্ঘ্য ভাতা, নির্দেশ দিল স্যাট

কলকাতার পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মাও টুইট করে শোকপ্রকাশ করেছেন। তিনি টুইটারে লিখেছেন, ‘এএসআই তুষারকান্তি কুলের প্রয়াণের দুঃখের খবর জানাচ্ছি। রিপোর্ট পজিটিভ আসার পর তাঁকে হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছিল। #করোনা শহিদ।’

করোনাভাইরাসের প্রকোপ রাজ্যে শুরু হওয়ার পর থেকেই কলকাতা পুলিশের ২,০০০-এর বেশি কর্মী-আধিকারিক করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ১২ জনের। মাস্ক, ফেস শিল্ড, গ্লাভস এবং স্যানিটাইজার-সহ সব রকমের সুরক্ষা নিচ্ছেন তাঁরা। কোথাও কোনও পুলিশকর্মী-আধিকারিক করোনায় আক্রান্ত হলে সহকর্মীদের মনোবল বাড়াতে এগিয়ে এসেছেন পুলিশ কমিশনার। যিনি নিজেও করোনার কবলে পড়েছিলেন।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *