ভারত ডেনমার্কের বৈঠকে চিনের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার ডাক দিলেন মোদি

Mysepik Webdesk: ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং ডেনমার্কের প্রধানমন্ত্রী মেটি ফেডরিকশন এদিন একটি দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে অংশ নিয়েছিলেন। ওই বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী নাম না করে চিনকে কোনঠাসা করার পাশাপাশি ভারত এবং ডেনমার্কের পুরোনো সম্পর্ককে নতুন করে তুলে ধরেন। প্রধানমন্ত্রী ওই বৈঠকে স্পষ্ট করে দিলেন, করোনা মোকাবিলা করতে সম্পূর্ণরূপে অন্য কোনও দেশের ওপরে নির্ভর করে থাকাটা মোটেই বুদ্ধিমানের কাজ নয়, এর ফল মারাত্মক হতে পারে।

আরও পড়ুন: ৫৬ টি আসনে উপনির্বাচনের ঘোষণা, ভোট হচ্ছে না পশ্চিমবঙ্গে

আত্মনির্ভর ভারতকে সামনে রেখে এদিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেন, “আমরা আত্মনির্ভর ভারত গড়ে তোলার লক্ষ্যে এগিয়ে চলেছি। আমরা চেষ্টা করছি যাতে করে ভারতের ক্ষমতা সমগ্ৰ বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে এবং গোটা বিশ্বের কাজে লাগে। ভারতকে সারা বিশ্বের দরবারে তুলে ধরার জন্য আমরা সবরকম প্রচেষ্টা চালাচ্ছি। ভারতে কাজ করতে আসা কোম্পানিদের সাফল্য আসবে। বতর্মানে কৃষি বিভাগ শ্রমিক বিভাগ এরকম আরও নানান বিভাগে মানুষের স্বার্থে গুরুত্বপূর্ণ পরিবর্তন করা হয়েছে।”

আরও পড়ুন: কোয়ারেন্টাইনে থাকলে পোস্টাল ব্যালটের মাধ্যমে ভোটের ব্যবস্থা করার নির্দেশ ইলেকশন কমিশনের

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, “করোনা ভাইরাসের প্রভাব আমাদের বুঝিয়ে দিয়েছে, কোনও একটি দেশের ওপর নির্ভরশীলতা যথেষ্ট ঝুঁকিপূর্ণ প্রমাণিত হতে পারে। আমরা জাপান এবং অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে মিলিত ভাবে সাপ্লাই চেনের সাম‍্যতা বজায় রাখার চেষ্টা করছি। আমাদের সঙ্গে অন্য কোনও ছোট দেশও জোট বাঁধতে পারে। আমি মনে করি, ভারত এবং ডেনমার্কের এই ভার্চুয়াল বৈঠক শুধুমাত্র দুই দেশের মধ্যে নয়, আন্তর্জাতিক স্তরেও এক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা গ্রহণ করবে।”

আরও পড়ুন: শীঘ্রই আরও পাঁচটি রাফাল যুক্ত হচ্ছে ভারতীয় বায়ুসেনাতে

এদিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ডেনমার্কের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠকে ডেনমার্কের প্রধানমন্ত্রী মেটি ফেডরিকশনকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছেন। পাশাপাশি তিনি ব‍্যস্ততার মধ্যেও সময় বের করে এই বৈঠকে অংশগ্রহণ করার জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন। করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে সদ্যবিবাহিত মেটি ফেডরিকশনকে স্বপরিবারে ভারতে আমন্ত্রণও জানালেন নরেন্দ্র মোদি।

Similar Posts:

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *