করোনা আবহে দিঘায় হোটেল ভাড়া নিলে পাওয়া যাবে আকর্ষণীয় ছাড়

Mysepik Webdesk: করোনা আবহে কতদিন আর ঘরবন্দি থাকা সম্ভব? পরিসংখ্যান বলছে, দেশজুড়ে করোনার অস্তিত্ব থাকলেও প্রকোপ কমেছে অনেকটাই। প্রকোপ কিছুটা কমতেই রাজ্যে খুলে দেওয়া হয়েছে পর্যটনকেন্দ্রগুলি, খুলে দেওয়া হয়েছে হোটেল-রেস্তোরাঁ। তবে এখনও পর্যন্ত অনেকেই করোনা আতঙ্কের জন্য বাড়ির বাইরে পা রাখছেন না। স্বাভাবিকভাবেই লোকসানের মুখ দেখছেন হোটেল মালিকরা। এই পরিস্থিতিতে পর্যটক টানতে হোটেল ভাড়ার ওপর আকর্ষণীয় অফার দেওয়া হচ্ছে দিঘা-শংকরপুর হোটেলিয়ার্স অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে।

আরও পড়ুন: রাজ্যের উপনির্বাচনে বিজেপি প্রাথী দেবে না, জানালেন শুভেন্দু

অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, হোটেলের যে ঘরগুলি একদিনের জন্য ভাড়া নিতে আগে ২ হাজার টাকা পর্যন্ত লাগত। সেই ঘরই এখন পাওয়া যাচ্ছে ১৫০০-১৭৫০ টাকায়। পাশাপাশি ১৫০০ টাকা ভাড়ার ঘরগুলি পাওয়া যাচ্ছে ১০০০ থেকে ১৩০০ টাকায় এবং ১০০০ টাকার ঘর পাওয়া যাচ্ছে মাত্র ৮০০ টাকায়। অর্থাৎ প্রায় ২৫ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় দেওয়া হচ্ছে হোটেলের ঘর ভাড়া নেওয়ার ক্ষেত্রে।

আরও পড়ুন: আগামী ১৫ অগাস্ট পর্যন্ত করোনা বিধিনিষেধ রাজ্যে, চলবে কী লোকাল ট্রেন?

সম্প্রতি রাজ্য সরকারের স্বাস্থ্য দপ্তরের পক্ষ থেকে বাংলার জনপ্রিয় পর্যটন কেন্দ্রগুলির হোটেল মালিকদের কড়া নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সেই নির্দেশিকা অনুযায়ী, ভ্যাকসিন নেওয়ার সার্টিফিকেট না থাকলে কিংবা একটি টিকা নেওয়া থাকলে হোটেলে ঘর নেওয়ার জন্য পর্যটকদের কাছে থাকতে হবে আরটিপিসিআর টেস্টের নেগেটিভ রিপোর্ট। অর্থাৎ কোনও ব্যক্তি দিঘা কিংবা শঙ্করপুরে হোটেল নিতে চাইলে সেক্ষেত্রে তার কাছে থাকতে হবে দু’টি ভ্যাকসিন নেওয়ার রিপোর্ট কিংবা সর্বোচ্চ ৭২ ঘন্টা আগে করা আরটিপিসিআর টেস্টের নেগেটিভ রিপোর্ট।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *