হিংসা ছড়ানোর অভিযোগে ফেসবুকে দু’বছরের জন্য ব্যান ডোনাল্ড ট্রাম্প

Mysepik Webdesk: আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রামকে দু’বছরের জন্য ব্যান করে দিয়েছে ফেসবুক। জানা গিয়েছে, ফেসবুকে হিংসায় উস্কানি দেওয়ার জন্যই তাঁর বিরুদ্ধে এই পদক্ষেপ নিয়েছে মার্ক জুকেরবার্গের সংস্থা। ক্যাপিটল বিল্ডিংয়ে হিংসাত্মক আক্রমণে সংস্থার নিয়মকানুন ভাঙার জন্য এই নিষেধাজ্ঞা। গত ৭ জানুয়ারি থেকে এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করা হয়েছে যার মেয়াদ আগামী ২০২৩ সালের ৭ জানুয়ারি পর্যন্ত লাগু থাকবে। যদিও ট্রাম্পের দাবি, ২০২০ -র নির্বাচনে বিরোধীরা যড়যন্ত্র করে তাঁকে নির্বাচনে জোর করে হারিয়েছে।

আরও পড়ুন: ব্রিটিশ ম্যাগাজিন ভোগ-এর ‘প্রচ্ছদ কন্যা’ নোবেলজয়ী মালালা

এই প্রসঙ্গে ফেসবুকের ভাইস প্রেসিডেন্ট নিক ক্লেগ বলছেন,”এই ঘটনার যথেষ্ট গুরুত্ব রয়েছে। সেই গুরুত্ব বিচার করেই ট্রাম্পকে ফেসবুকে বয়কট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংস্থা। আমরা মনে করি তাঁর প্রতিক্রিয়া আমাদের নিয়ম ভেঙেছে। সেই ভুলের জন্য আমাদের বিধি অনুযায়ী এই ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি।” ক্লেগ আরও জানিয়েছেন, “আমরা যদি মনে করি এই মেয়াদের পরেও জনগণের আশঙ্কা থেকে যাচ্ছে তবে আমরা বয়কটের মেয়াদ আরও বাড়াব, যতদিন না সাধারণ মানুষ আশঙ্কা মুক্ত হচ্ছেন, ততদিন পর্যন্ত ফেসবুক ব্যবহার করতে পারবেন না তিনি। আমরা মনে করি, আমাদের এই সিদ্ধান্তের বহু বিরূপ সমালোচনা হবে। বিশেষ করে রাজনৈতিক প্রতিপক্ষরা আমাদের এক হাত নেবে। কিন্তু আমাদের কাজ হল সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়া, পর্যবেক্ষকদের মতামতের উপর দাঁড়িয়ে স্বচ্ছ মত প্রদান করা।”

আরও পড়ুন: সংস্কারের কাজ চলাকালীন এসে পড়ল ট্রেন, চিনে নিহত ৯ রেলওয়ে কর্মী

যদিও এতকিছুর পরেও স্বমেজাজে রয়েছেন প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট। একটি বিবৃতিতে তিনি জানিয়েছেন, “এই নিষেধাজ্ঞা চাপানোর কাজে ফেসবুককে অনুমোদন দেওয়া উচিত না।” অন্যদিকে মিডিয়া ম্যাটারস ফর আমেরিকা নামক একটি সংস্থার সভাপতি অ্যাঞ্জেলো কারুসন জানান, “ফেসবুক যা সিদ্ধান্ত নিয়েছে, এডবোড সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে। দু’বছর পর যদি ফেসবুক এই বয়কট তুলে নেয় তবে এই প্ল্যাটফর্মে চরমপন্থার বাদ্য বাজবে।”

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *