অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশাপাশি ত্রিপুরায় আক্রান্ত সুদীপ-দেবাংশুও

Mysepik Webdesk: তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ত্রিপুরা সফর নিয়ে সোমবার সকাল থেকেই সরগরম রাজনীতি। ত্রিপুরায় পা রাখার সঙ্গে সঙ্গেই তিনি আক্রান্ত হলেন বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের কাছে। একাধিক জায়গায় কালো পতাকা, গো-ব্যাক স্লোগান দেওয়ার পাশাপাশি তাঁর কনভয়ের গাড়িতে বাঁশ দিয়েও আঘাত করতে দেখা গিয়েছে বিক্ষোভকারীদের। শুধু তাই নয়, আগরতলা বিমানবন্দর থেকে শহর পর্যন্ত একাধিক জায়গায় তৃণমূলের দলীয় পতাকা ছিঁড়ে ফেলার অভিযোগ উঠেছে বিজেপি কর্মীদের বিরুদ্ধে।

আরও পড়ুন: অভিষেক ত্রিপুরায় পা রাখতেই ধুন্দুমার কান্ড, বাঁশের বাড়ি মারা হল গাড়ির ওপর

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ত্রিপুরা সফরের আগে সেখানে গত কয়েকদিন ধরেই ঘাঁটি গেড়ে ছিলেন যুব তৃণমূল নেতা সুদিন রাহা, দেবাংশু ভট্টাচার্যরা। সূত্রের খবর, এদিন তাঁদেরকেও ছাড় দেওয়া হয়নি। ত্রিপুরার বিজেপি কর্মীরা হামলা চালিয়েছে তাঁদের ওপরেও। যদিও ত্রিপুরার তৃণমূল নেতা আশিষলাল সিংহ স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, এভাবে তৃণমূলকে আটকানো যাবে না। যত বাধা আসবে তৃণমূলের কর্মীদের মনোবল তত বাড়বে। তিনি আরও বলেন, এভাবে বিজেপি-শাসিত রাজ্যে কেউ উনাদেরকে চ্যালেঞ্জ জানাবে, সেটা ওনারা কিছুতেই মেনে নিতে পারেন নি, তাই অগণতান্ত্রিকভাবেই এই আক্রমণ।

আরও পড়ুন: আন্তঃরাজ্য বিবাদ! অসমের বাসিন্দাদের মিজোরামে যেতে নিষেধ

তৃণমূল কংগ্রেস সূত্রে খবর, সোমবার আগরতলা পৌঁছে প্রথমেই তিনি সিপাহীজলা হয়ে উদয়পুর মাথাবাড়ি ত্রিপুরেশ্বরী মন্দিরে যাবেন। ত্রিপুরার মানুষের বিশ্বাস, ত্রিপুরেশ্বরী মন্দিরে পুজো দিয়েই কোনও ভালো কাজ শুরু করলে সেই কাজে সফলতা আসে। বিজেপির বিরোধিতা সত্ত্বেও এদিন অবশ্য ত্রিপুরার তৃণমূল কর্মীরা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে ত্রিপুরায় স্বাগত জানাতে যথেষ্ট তৎপর ছিলেন। অন্যদিকে সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিজেপি। ত্রিপুরার বিজেপি নেতৃত্ব সাফ জানিয়ে দিয়েছে, তাঁদের কোনও কর্মী এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত নয়।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *