জামাইষষ্ঠীর আগেই বাজারে দেখা মিলল বড় ইলিশের, তবে দাম আকাশছোঁয়া

Mysepik Webdesk: আজ বাদে কাল জামাইষষ্ঠী। এদিকে অনুষ্ঠানের মেনুতে জামাইয়ের পাতে ইলিশ মাছের পদ থাকবে না, তা কি করে সম্ভব? কিন্তু বাজারে ইলিশের দেখা মিললেও তার দাম আকাশছোঁয়া। তাই বাধ্য হয়েই বেশিরভাগ মধ্যবিত্ত বাঙালিকে ফিরতে হচ্ছে মুরগি কিংবা খাসির মাংস কিনে। মঙ্গলবার সকালে কলকাতার বেশ কয়েকটি বড় বাজার ঘুরে দেখা গেল এরকমই ছবি।

আরও পড়ুন: বিজেপিতে দলীয় ভাঙ্গন অব্যহত, খোদ শুভেন্দুকে মারাত্মক প্রশ্ন করলেন বিজেপি কর্মী

মাছের ব্যাবসায়ীরা জানাচ্ছেন, এবছর ইলিশের মরসুম শুরু হলেও এখনও পর্যন্ত নিম্নচাপ, প্রাকৃতিক দুর্যোগ এবং লকডাউনের জেরে মৎস্যজীবীরা সমুদ্রে ইলিশ ধরতে যাওয়ার অনুমতি পাননি। তবে দিন কয়েক আগে বাজারে ১৫০ মেট্রিক টন মায়ানমারের ইলিশ এসেছে। কিন্তু সেই ইলিশ ছুঁতে হাত পুড়ছে ইলিশপ্রিয় বাঙালির। ওই ইলিশ খুচরো বাজারে বিক্রি হচ্ছে ১২০০ থেকে ১৩০০ টাকা প্রতি কেজি। একটু বড় সাইজের ইলিশের দাম আবার আরও বেশি। অথচ ওই ইলিশ পদ্মার টাটকা ইলিশ নয়। মায়ানমার থেকে জাহাজে করে বরফ দিয়ে নিয়ে আসার কারণে সেগুলির স্বাদও অতটা ভালো নয়।

আরও পড়ুন: শ্বাসরোধ করা হয়েছে বাংলায় গণতন্ত্রের­: বিজেপি বিধায়কদের সঙ্গে চা-চক্রে সরব রাজ্যপাল

তবে খুশির খবর, মঙ্গলবার থেকে সমুদ্রে আবহাওয়ার কিছুটা উন্নতি হওয়ায় ইলিশ ধরা শুরু হবে। সেক্ষেত্রে আগামী ১৭ কিংবা ১৮ তারিখের মধ্যে সেই ইলিশের দেখা মিলতে পারে দিঘা মোহনা কিংবা ডায়মন্ড হারবারের পাইকারি বাজারে। খুচরো বাজারে বিকোতে হয়তো আরও দু’একদিন সময় লাগবে। এর ফলে কিছুটা হলেও বাজারে ইলিশের অকাল কাটবে বলেই মনে করছেন ব্যবসায়ীরা। দামও থাকবে মধ্যবিত্তের নাগালের মধ্যেই।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *