বড়োসড়ো পদক্ষেপ বাংলাদেশের, ধর্মীয় হিংসায় জড়িত ৪ হাজারেরও বেশি জনের বিরুদ্ধে মামলা

Mysepik Webdesk: ঢাকায় সাম্প্রদায়িক সংঘর্ষের ঘটনায় বড়োসড়ো পদক্ষেপ গ্রহণ করল বাংলাদেশ সরকার। ইতিমধ্যেই ৪ হাজারেরও বেশি অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তিকে অভিযুক্ত করেছে বাংলাদেশ পুলিশ। তাদের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে ঢাকার একাধিক থানায়। পুলিশ তাদের বিরুদ্ধে মূলত ভাঙচুর, নিরাপত্তাকর্মীদের মারধর ও সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার মতো গুরুতর অভিযোগ এনেছে।

আরও পড়ুন: হাইতিতে অপহৃত ১৭ মার্কিন খ্রিস্টান মিশনারি ও তাঁদের পরিবার

দুর্গাপুজোর সময় কুমিল্লায় একাধিক দুর্গাপুজোর মণ্ডপে হামলা করে দুষ্কৃতীরা। পাশাপাশি হাজিগঞ্জের চাঁদপুর, চট্টোগ্রামের বাঁশখালি ও কক্সবাজারের পেকুয়াতেও পবিত্র কোরান শরীফের অপমান করা হয়েছে, এই অভিযোগে হামলা চালানো হয় বিভিন্ন পুজোমণ্ডপে। ভেঙে ফেলা হয় একাধিক দুর্গা প্রতিমা। হামলা চালানো হয় বাংলাদেশের নোয়াখালির ইসকন মন্দিরেও। মৃত্যু হয় পার্থ দাস নামে এক যুবকের। শুক্রবার জুম্মার নমাজের পর ঢাকার পল্টন, রমনা, চকবাজার এলাকায় বহু মানুষ ইসলাম ধর্মের অপমানের অভিযোগ এনে রাস্তায় নামে। পুলিশ ও বিক্ষোভকারীদের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে ঢাকার কাকরাইল মোড়ে।

আরও পড়ুন: আফগানিস্তানের পরিস্থিতি নিয়ে সম্মেলন আয়োজন করবে ভারত, আমন্ত্রণ পাকিস্তানকেও

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ইতিমধ্যেই বাংলাদেশের বিভিন্ন জায়গায় কড়া নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে বার বার মানুষকে শান্তি-শৃঙ্খলা ও সম্প্রীতি বজায় রাখার আবেদন জানানো হয়। জানা গিয়েছে, ২২টি জেলায় বাংলাদেশের বিজিবি বাহিনীকে মোতায়েন করা হয়েছে। পাশাপাশি দোষীদের কড়া শাস্তির দেওয়ার কথাও ঘোষণা করেছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *