ভয় বাড়াচ্ছে ব্ল্যাক ফাঙ্গাস, রইল স্বাস্থ্য দপ্তরের গাইডলাইন

Mysepik Webdesk: করোনাভাইরাসের আবহে ভয় বাড়াচ্ছে ব্ল্যাক ফাঙ্গাস। ইতিমধ্যেই ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে আক্রান্ত হয়ে কলকাতায় একজনের মৃত্যু হয়েছে। রাজ্যের স্বাস্থ্য দপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, এটাই পশ্চিমবঙ্গে প্রথম ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর ঘটনা। করোনাভাইরাসের মতোই কীভাবে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের হাত থেকে নিজেকে বাঁচানো যায়, ইতিমধ্যেই এই সংক্রান্ত গাইডলাইন প্রকাশের জন্য বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে একাধিক বৈঠক করেছে রাজ্যের স্বাস্থ্য দপ্তর। সেই বৈঠকের পর এক‌টি সরকারি নির্দেশিকা বা গাইডলাইন তৈরি করা হয়েছে। স্বাস্থ্য দপ্তর জানিয়েছে, আক্রান্তের খবর পেলেই জানাতে হবে স্বাস্থ্য দফতরকে।

আরও পড়ুন: এবার বাড়িতে বসে নিজেই করতে পারবেন করোনা টেস্ট

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, ব্ল্যাক ফাঙ্গাস বা মিউকরমাইকোসিস ফাঙ্গাসটি সাধারণত মাটিতে থাকে। শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে গেলেই এই ভাইরাসের দ্বারা আক্রান্ত হতে পারে মানুষ। এই রোগে সাধারণ ব্লাড প্রেসার কমে যাওয়ার উপসর্গ দেখা যায়। এর ফলে মানুষের মৃত্যুও ঘটতে পারে। কারও কারও আবার চোখেও নানান সমস্যা দেখা যায়।

কীভাবে প্রতিরোধ করা সম্ভব?

স্বাস্থ্য দপ্তর জানিয়েছে, এই রোগের হাত থেকে বাঁচতে গেলে ডায়াবিটিসকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে। মাস্ক পরতে হবে। এছাড়াও বাগানের কাজ করার সময় গ্লাভস পরা বিশেষ জরুরি। বাড়ির ক্যাস্পাস পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে। ফাঙ্গাস জমতে পারে এরকম কোনও খোলা জায়গায় বাসি খাবার রাখা যাবে না।

আরও পড়ুন: প্রতিজ্ঞা করি, আগামীকাল আবার চেষ্টা করব পৃথিবীকে আরও একটু সুস্থ করে তোলার

উপসর্গ

এই রোগে মূলত মাথা ব্যাথার সমস্যা হবে। সাইনাসের সমস্যা হবে। সর্দি-কাশির সঙ্গে রক্তপাত হতে পারে। মুখে ব্যাথা, কালো ছোপ ছোপ দাগ পড়ে যাওয়ার মতো উপসর্গ দেখা যাবে। এছাড়াও শ্বাসকষ্ট, রক্তবমি কিংবা চোখ লাল হয়ে ফুলে যাওয়ার মতো সমস্যা হতে পারে। স্বাস্থ্য দপ্তর জানাচ্ছে, এই ধরণের সমস্যা দেখা গেলে সময় নষ্ট না করে অবিলম্বে চিকিৎসকদের সঙ্গে যোগাযোগ করা উচিত। দ্রুত চিকিৎসা শুরু না করলে রোগীর প্রাণহানি পর্যন্ত ঘটতে পারে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *