বলিভিয়ার কর্পোরেট পন্থী প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট জেনাইন আনেজ গ্রেপ্তার

Mysepik Webdesk: প্রায় বছর দুইয়ের আগেকার ঘটনা। মধ্য দক্ষিণ আমেরিকার দেশ বলিভিয়ায় নির্বাচিত বাম পপুলিস্ট প্রেসিডেন্ট ইভো মোরালেসকে ফার-রাইট উইং ক্যু ঘটিয়ে ক্ষমতাচ্যুত হতে হয়েছিল এক বলিভিয়ার উগ্র দক্ষিণপন্থী নেত্রীর দ্বারা। তিনি জেনাইন আনেজ।

ক্ষমতা হারিয়ে বলিভিয়া মাস সোশ্যালিস্ট পার্টির নেতা ইভো মোরালেস বিদেশে নির্বাসনে যেতে বাধ্য হন ২০১৯-এ নভেম্বরে। তাঁর দলের অনেক শীর্ষস্থানীয় নেতা মোরালেসের সঙ্গেই দেশ ত্যাগে বাধ্য হন। অবশ্য এরপর এক বছরের মাথায় সাধারণ নির্বাচনে উগ্র দক্ষিণপন্থীদের ভোটে চূড়ান্তভাবে পরাজিত করে ফের ক্ষমতা দখল করে ‘মুভমেন্ট টুওয়ার্ডস সোশ্যালিজম’। ইভো মোরালেস দেশে ফিরে আসেন। প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন লুই আর্কে।

এবার ক্ষমতা সংহত করে পাল্টা আঘাত হানল বামপন্থীরা। কয়েক ঘণ্টা আগে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলিভিয়ার প্রাক্তন কেয়ারটেকার প্রেসিডেন্ট জেনাইন আনেজকে। খুব অল্প সময় যিনি ক্ষমতা হাতে পেয়ে গোটা দেশকে স্বদেশি ও মার্কিন কর্পোরেটদের হাতে কার্যত বিক্রি করে দিতে উদ্যত হয়েছিলেন বলে আনেজ-বিরোধীদের দাবি। সমাজতন্ত্রী দলের সমর্থকদের উপর নির্বিচারে গণহত্যা, জেলে ঢোকানো এবং ত্রাসের রাজত্ব চালিয়েছিল এই মহিলার অন্তর্বর্তী সরকার। ত্রিনিদাদ শহরে শনিবার স্থানীয় সময় ভোরবেলায় গ্রেপ্তার করা হয় আনেজকে।

গ্রেপ্তার করে আনেজকে বিমানযোগে নিয়ে যাওয়া হয়েছে লা পাজ শহরে। গ্রেপ্তার হওয়ার আগে আনেজ অবশ্য ট্যুইট করে “দেশজুড়ে রাজনৈতিক প্রতিহিংসামূলক শাস্তি প্রদান প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে”― বলে অভিযোগ জানান। আনেজের সঙ্গেই এদিন গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলিভিয়ার কেয়ারটেকার সরকারের প্রতিরক্ষা এবং শক্তি বিষয়ক মন্ত্রীদেরও। সবমিলিয়ে বলাই যায়, বলিভিয়ায় রাজনৈতিক মহল আগামী দিনে বেশ নাটকীয়তায় ভরপুর থাকবে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

One comment

  • শুভঙ্কর বিশ্বাস

    দক্ষিণপন্থা যতই শক্তিশালী আর উগ্র হোক না কেন,তা কোনদিন ই চিরস্থায়ী নয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *