বোনের সঙ্গে প্রেমের জেরে দাদাদের হাতে খুন প্রেমিক

Mysepik Webdesk: ছেলেটির অপরাধ ছিল সে পাড়ার একটি ছেলের বোনের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়েছিল, আর তার জেরেই নিজের জীবন দিয়ে খেসারত দিতে হল দিল্লির আদর্শনগরে নন্দ রোড অঞ্চলের বাসিন্দা দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ে ওপেন লার্নিং স্কুলে পাঠরত রাহুল রাজপুতকে। বাড়ির বাইরে প্রকাশ্যে রাহুলকে পিটিয়ে মারল প্রেমিকার দাদারা। পরে ঘটনার সিসিটিভি ফুটেজ দেখে পাঁচ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

আরও পড়ুন: লকডাউনে তিনমাস ঘরে থেকে ৩৫০টি কোর্স করে বিশ্বরেকর্ড ভারতীয় তরুণীর

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে, বুধবার সন্ধেবেলায় রাহুলকে বাড়ি থেকে ডেকে বের করে বেশ কয়েকজন ছেলে। তারপর সেখানেই শুরু হয় বেধড়ক মার। সেই মার সহ্য করতে না পেরে অজ্ঞান হয়ে যায় রাহুল। কয়েকজন বাধা দিতে গেলে তাদের মধ্যে থেকে একজন জানায়, “এই ছেলেটি আমার বোনকে উত্যক্ত করেছে তাই মারছি।” এরপর প্রায় আধমরা অবস্থায় তাকে ফেলে রেখে চলে যায় তারা। সেই অবস্থায় সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে।

আরও পড়ুন: রাতভর গুলির লড়াই, জম্মু-কাশ্মীরে খতম ২ জঙ্গি

রাহুলের কাকার কথায়, ওই এলাকারই একটি মেয়ের সঙ্গে রাহুলের প্রায় দু’বছর ধরে সম্পর্ক ছিল। কিন্তু মেয়েটির দাদারা এই সম্পর্ককে মোটেই ভালো চোখে দেখে নি। তাই রাহুলকে তারা ‘উচিত শিক্ষা’ দেওয়ার পরিকল্পনা করে। নন্দ রোড অঞ্চলে ডেকে নিয়ে গিয়ে সেখানে চলে বেধড়ক মারধর। এই ঘটনা প্রসঙ্গে দিল্লি পুলিশের ডেপুটি কমিশনার বিজয়ন্ত আর্য বলেন, “ছেলেটির শরীরে কোনও ক্ষত চিহ্ন ছিল না, তলপেটে হঠাৎ আঘাত লাগায় সে মারা যায়।”

Similar Posts:

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *